ঢাকা, সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

কোর্টে চার গ্ল্যামারগার্ল

প্রকাশনার সময়: ১০ মার্চ ২০২২, ১৪:৩০

হ্যারিয়েট ডার্ট, হিদার ওয়াটসন এবং কেটি বোল্টার নিজ নিজ ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়ে ইন্ডিয়ান ওয়েলসের মূলপর্বে জায়গা করে নিয়েছেন। এই তিনজনের সাফল্যে চার ব্রিটিশ টেনিস গ্ল্যামারগার্লের ইন্ডিয়ান ওয়েলসে খেলা নিশ্চিত হয়। টুর্নামেন্টে হিদার ওয়াটসন, হ্যারিয়েট ডার্ট ও কেটি বোল্টারের সঙ্গে যোগ দেবেন ব্রিটেনের আরেক গ্ল্যামারগার্ল ইমা রাদুকানু।

ডার্ট (২৫) ৬-২, ৩-৬ ও ৬-৩ গেমে হারান রাশিয়ার অ্যানাস্তাসিয়া গাসানোভাকে। তবে বোল্টার (২৫) সহজ জয়ই পেয়েছেন। তিনি সরাসরি সেটে (৬-৩, ৬-৩ গেমে) হারান ইতালির সারা ইরানিকে। এই দুজনের আগেই ইন্ডিয়ান ওয়েলসের মূলপর্বে নিজের অবস্থান নিশ্চিত করেন ওয়াটসন। তিনি শুরুতে পিছিয়ে থেকেও ৪-৬, ৬-২, ৬-১ গেমে হারান জাপানের মাই হনতামাকে।

তবে ইউএস ওপেন জয়ী ও টুর্নামেন্টের ১১তম বাছাই রাদুকানু ইন্ডিয়ান ওয়েলসের প্রথম রাউন্ডে বাই পেয়েছেন। তিনি দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলবেন গত সপ্তাহের ফ্রান্সের লিঁও টুর্নামেন্টের ফাইনালে ওঠা ডায়ানা ইয়াসট্রেমস্কা অথবা ক্যারোলিন গার্সিয়ার বিপক্ষে। বিশ্ব র্যাঙ্কিংয়ে ১১৩, ১২২ ও ১২৭তম স্থানে রয়েছেন যথাক্রমে ওয়াটসন, ডার্ট ও বোল্টার।

চারটি ওপেনের পর সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ ইন্ডিয়ান ওয়েলসের দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে হলে ওয়াটসন, ডার্ট ও বোল্টারকে অঘটনই ঘটাতে হবে। কারণ প্রথম রাউন্ডে এই তিনজনকে মুখোমুখি হতে হবে র্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ ৫০ এ থাকা খেলোয়াড়দের বিপক্ষে। ওয়াটসন প্রথম রাউন্ডে মুখোমুখি হবেন চেক রিপাবলিকের তেরেজা মার্টিনকোভার বিপক্ষে। অপরদিকে ডার্ট লড়বেন ক্রোয়েশিয়ার অ্যানা কোনজু’র বিপক্ষে।

আর বোল্টার খেলবেন ইতালির জেসমিন পাওলিনির বিপক্ষে। তবে ওপেনিং রাউন্ডের সবচেয়ে বড় ম্যাচটি হবে আসরের ২০১৮ সালের চ্যাম্পিয়ন ও সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন নাওমি ওসাকা ও টুর্নামেন্টের ২০১৭ আসরের চ্যাম্পিয়ন স্লোয়ান স্টিফেন্সের মধ্যে।

ওসাকা ও স্লোয়ানের মধ্যকার ব্লকবাস্টার লড়াইটির আগে দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স কিছুটা জেনে নেয়া যাক। মেলবোর্ন সামার সেটে সেরা চারে জায়গা করে নেয়ার মধ্য দিয়ে বছরটি শুরু করেন নাওমি। তবে পেটে চোটের কারণে সেমিফাইনালে খেলেননি তিনি।

অস্ট্রেলিয়া ওপেনে তার শিরোপা ধরে রাখার লড়াইটি শেষ হয় তৃতীয় রাউন্ডে আমান্ডা আনিসিমোভার কাছে হেরে। প্রতিযোগিতায় প্রথমদিকেই বাদ পড়ে যাওয়ায় ২৪ বছর বয়সি নাওমির র্যাঙ্কিংয়ে ব্যাপক অবনমন ঘটে। সাবেক এই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বর্তমানে র্যাঙ্কিংয়ে ৭৮তম স্থানে অবস্থান করছেন। ২০১৮ সালে ইন্ডিয়ান ওয়েলসের শিরোপা দিয়েই বিশ্ব মঞ্চে নিজেকে চিনিয়েছিলেন ওসাকা।

এই টুর্নামেন্টে সাফল্যের পথ ধরেই পরবর্তীতে গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের মুকুট পড়েছিলেন। চার বছর পর আবার এই আসর দিয়েই নিজের ক্যারিয়ার পুনর্জীবিত করার স্বপ্ন দেখছেন নাওমি। অপরদিকে স্টিফেন্স অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রথম রাউন্ডে ২০২১ সালের ইউএস ওপেনজয়ী ইমা রাদুকানুর মুখোমুখি হয়ে চলতি বছরের খেলা শুরু করেছিলেন। এবার আবারো প্রথম রাউন্ডে কোনো গ্রান্ড স্লাম বিজয়ীর মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন এই মার্কিন তারকা। আসন্ন লড়াইয়ের আগে দুইবার মুখোমুখি হয়েছিলেন নাওমি ও স্টিফেন্স।

আগের উভয় মুখোমুখিতেই জিতে নাওমির বিপক্ষে ২-০তে এগিয়ে আছেন তিনি। সর্বশেষ ২০১৮ সালের ডব্লিউটিএ আসরের ফাইনালে নাওমি ও স্টিফেন্স মুখোমুখি হয়েছিলেন। তিন সেটের যে লড়াইয়ে জিতেছিলেন স্টিফেন্স। যুক্তরাষ্ট্রে ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের ইন্ডিয়ান ওয়েলস যেটা এখন বিএনপি পারিবাস টুর্নামেন্ট নামে পরিচিত টেনিস টুর্নামেন্টটি বেশ জনপ্রিয়। ৮৩ লাখ ৭০ হাজার মার্কিন ডলার প্রাইজমানির হার্ডকোর্টের এই আসরটি উপভোগ করতে ইন্ডিয়ান ওয়েলস নামক ছোট শহরটিতে প্রতিবছর লাখ লাখ মানুষের সমাগম ঘটে।

নয়া শতাব্দী/এসএস

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ