ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ৭ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

প্রথমবার বাংলাদেশে বসছে এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকি

প্রকাশনার সময়: ১৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:২৬

প্রথমবারের মতো এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকির আয়োজক হয়েছে বাংলাদেশ। চারবার পিছিয়ে আজ মঙ্গলবার (১৪ ডিসেম্বর) থেকে মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাচ্ছে এই মেগা আসর।

যেখানে অংশ নিতে যাচ্ছে ভারত, পাকিস্তান, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার মতো শক্তিশালী দলগুলো। তাদের সঙ্গে প্রথমবারের মতো অংশ নিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। মালয়েশিয়া এই আসরে অংশ নিতে ফ্লাইট ও হোটেল বুক করলেও শেষ মুহূর্তে আসছে না তারা।

তার আগে সোমবার হকি স্টেডিয়ামের টার্ফে হয়েছে চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ট্রফি উন্মোচন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন এশিয়ান হকি ফেডারেশনের প্রধান নির্বাহী তৈয়ব ইকরাম, বাংলাদেশ হকি ফেডারেশনের সহ-সভাপতি আব্দুর রশিদ শিকদার, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. ইউসুফ, বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক আশরাফুল ইসলাম, পাকিস্তানের অধিনায়ক উমর ভুট্টো, ভারতের অধিনায়ক মানপ্রিত সিং, জাপানের অধিনায়ক সেং তানকা ও দক্ষিণ কোরিয়ার অধিনায়ক লি জং জিয়ুন।

ঘরের মাঠে প্রথমবার এমন আয়োজন, সেখানে প্রথমবার অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। নিজেদের প্রত্যাশার কথা জানিয়ে আশরাফুল বলেন, ‘পাঁচ দল নিয়ে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হচ্ছে। আমি আশা করবো এই পাঁচ দলের ভেতরে যারা ভালো খেলবে তারা চ্যাম্পিয়ন হবে। চেষ্টা করবো নিজেদের সেরাটা দেওয়ার। সেরাটা খেলার।’

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটায় উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে কোরিয়া ও ভারত। এরপর সন্ধ্যা ৬টায় দিনের অপর ম্যাচে লড়বে পাকিস্তান ও জাপান।

বুধবার সাড়ে তিনটায় বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভারতের। সন্ধ্যায় কোরিয়া লড়বে জাপানের বিপক্ষে। শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ খেলবে কোরিয়ার বিপক্ষে। শনিবার সন্ধ্যায় তৃতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ জাপান। আর রোবার সন্ধ্যায় শেষ ম্যাচে পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

লিগ পদ্ধতিতে খেলা অনুষ্ঠিত হবে। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ চারটি দল খেলবে ফাইনাল। সেখান থেকে দুটি দল উঠবে ফাইনালে। বাকি দুটি দল তৃতীয় হওয়ার জন্য লড়বে।

স্টার স্পোর্টস-১ ও স্টার স্পোর্টস-২ এর মাধ্যমে এশিয়ান চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হকির ম্যাচগুলো দেখা যাবে বিশ্বের ৭৫টি দেশে।

আর মওলানা ভাসানী হকি স্টেডিয়ামে উপস্থিত হয়েও দেখা যাবে ম্যাচটি। সেক্ষেত্রে কোনো টিকিট লাগবে না। গ্যালারি সাধারণ দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

এই আয়োজনের ডেভেলপমেন্ট পার্টনার ক্রীড়াবান্ধব প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপ।

নয়া শতাব্দী/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়