ঢাকা | শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে ‘চাঁদের জমি’ উপহার দিলেন সাংবাদিক

নয়া শতাব্দী ডেস্ক
প্রকাশনার সময়: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:১৬ | আপডেট: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:২১

বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে ‘চাঁদের জমি’ উপহার দিলেন সাংবাদিক এমডি অসিম। গতবছর ভারতে এক ব্যক্তি বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে চাঁদে জমি উপহার দেন। এটা দেখেই স্ত্রী টুম্পাকেও চাঁদের জমি উপহার দেওয়ার ইচ্ছা জাগে সাংবাদিক অসীমের। যেই ভাবনা সেই কাজ।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ষষ্ঠ বিবাহবার্ষিকীতে ‘চাঁদের এক একর জমি কিনে’ স্ত্রীকে উপহার দেন তিনি।

জানা যায়, এমডি অসীম দেশটিভির খুলনা বিভাগীয় প্রতিনিধি। তার বাড়ি গোপালগঞ্জ হলেও পেশাগত দায়িত্বে তিনি স্ত্রীকে নিয়ে খুলনা মহানগরীর মডার্ন মোড় এলাকায় বসবাস করেন। ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর তাদের বিয়ে হয়। তার স্ত্রী টুম্পা একজন চিকিৎসক। তাদের চার বছরের একটি সন্তানও রয়েছে।

এ বিষয়ে অসীম বলেন, ‘আমার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে স্পেশাল কিছু উপহার দেব। গত বছর জানতে পারলাম ভারতের এক ব্যক্তি বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে চাঁদের জমি কিনে দিয়েছেন। এ ঘটনা জানতে পেরে আমিও চাঁদের জমি কিনে স্ত্রীকে উপহার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।’

তিনি আরও বলেন, ২০ সেপ্টেম্বর মার্কিন নাগরিক ডেনিস হোপের ‘লুনার অ্যাম্বাসি’ থেকে ৪৫ ডলারের বিনিময়ে এ জমি কিনেছি। জমি কেনার পর আমাদের একটি বিক্রয় চুক্তিনামা, কেনা জমির একটি স্যাটেলাইট ছবি এবং জমিটির ভৌগোলিক অবস্থান ও মৌজা-পর্চার মতো আইনি নথিও পাঠিয়েছে সংস্থাটি৷

স্ত্রী ইসরাত টুম্পা বলেন, চাঁদের দেশে এক টুকরো জমি উপহার পেয়ে আমি দারুণ উচ্ছ্বসিত। গত বছর ভারতের একটি ঘটনা দেখে আমার স্বামী ইচ্ছা পোষণ করেছিল। এবার বিবাহবার্ষিকীতে সে আমাকে সত্যি সারপ্রাইজ গিফট দিতে পেরেছে। উপহারটি পাওয়ার পর আমার মনে হচ্ছিল আমি যেন স্বপ্নের চাঁদে চলে গেছি।

উল্লেখ্য, চাঁদে জমি কেনার জন্য মার্কিন নাগরিক ডেনিস হোপের ‘লুনার অ্যাম্বাসি’ই হলো সবচেয়ে জনপ্রিয় কোম্পানি। যার বাংলা অর্থ ‘চন্দ্র দূতাবাস’। তাদের তথ্যানুযায়ী, চাঁদে জমির দাম একর প্রতি ২৪.৯৯ ডলার থেকে সর্বোচ্চ ৪৯৯ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ২১২৫ টাকা থেকে ৪২৪৩৭ টাকা।

এর আগে ৫৫ ডলারে চাঁদে জমি কেনার খবরে আলোচনায় আসেন সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার পাতাখালী গ্রামের এস এম শাহিন আলম ও তার বন্ধু সদর উপজেলার জোড়দিয়া গ্রামের শেখ শাকিল হোসেন।

নয়া শতাব্দী/জেআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন