ঢাকা | মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

মুমিনের প্রাণের খোরাক জুমার নামাজ

হাসনাইন হাফিজ

প্রকাশনার সময়

০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৪

জুমার নামাজ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিধান। এ নামাজের মর্যাদা, ফজিলত ও তাৎপর্য অনেক বেশি। জুমার দিনে সকাল থেকেই উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করে চারিদিকে। মায়েরা আদরের সন্তানকে জুমার নামাজের জন্য সাজিয়ে দেন। প্রস্তুত হয়ে নেন পিতারাও। অধিক পূণ্যের আশায় নির্ধারিত সময়ের আগেই অনেকে ছুটেন মসজিদ পানে। সাদা পাঞ্জাবি-টুপি পরিহিত সারি সারি মুসিল্লির ছুটে চলা সত্যিই দৃষ্টিনন্দনীয়। যেদিকেই দুচোখ যায় কেবল মুসল্লি আর মুসিল্লি। এ যেন মসজিদমুখী মুসিল্লিদের মৌন মিছিল।

এ মর্যাদা ও ফজিলতের পেছনে যথেষ্ট কারণ রয়েছে। মহান আল্লিাহ আসমান-জমিনসহ গোটা জগতকে ছয়দিনে সৃষ্টি করেছেন। এই ছয়দিনের শেষ দিনটি ছিল জুমার দিন। এ জুমার দিনে পৃথিবীর প্রথম মানুষ হজরত আদমের জন্ম হয়। তাকে বেহেশতে পাঠানো হয়। ফের বেহেশত থেকে দুনিয়ায় পাঠানো হয়। এছাড়াও ইসলামের অলৌকিক ও ঐতিহাসিক বহু গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা এদিনে সংঘটিত হয়েছিল। এদিনে এমন কিছু বিশেষ মুহূর্ত আছে যখন দোয়া কবুল হয়। হাদিসে এসেছে, দোয়া কবুলের পাঁচ রাতের অন্যতম জুমার রাত। তাছাড়া এদিনের আসর থেকে মাগরিব পর্যন্ত সময়কাল দোয়া কবুল হয়। দুই খুতবার মধ্যকার সময়ে দোয়া কবুল হয়। এমনকি ইমাম সাহেব খুতবার জন্য মিম্বরে দাঁড়ানোর সময়েও দোয়া কবুল হয়। দোয়া যখনই কবুল হোক, হবে। এজন্য প্রয়োজন মানবতার একান্ত আর্তি। বিনয়ের সর্বোচ্চ প্রকাশ। পুরো দিনই ইবাদতে কাটিয়ে দেয়া। সেই সঙ্গে কবরের আজাব থেকে পরিত্রাণ চাওয়া।

এদিনে গোসল করা, উত্তম পোশাক পরা, সুগন্ধি ব্যবহার করা, বেশি করে দরূদ পাঠ, কবর জিয়ারত এবং সুরা কাহফ পাঠ করার কথা বলা হয়েছে। মহানবীর (সা.) ভাষ্যমতে জুমার দিন সুরা কাহফ পাঠকারীর চেহারায় এক জুমা থেকে পরবর্তী জুমা পর্যন্ত একটি নূর ও আলোকচ্ছটা পরিস্ফুট হয়। তবে সমাজে ব্যতিক্রম চিত্রও দেখা যায়। সমাজেরই কিছুসংখ্যক তরুণ, যুবকÑযারা সাপ্তাহিক সিনেমা, খেলাধুলা ও ঘোরাফেরা করে কাটিয়ে দিতে চায় দিনটি। এরা দিনটির সুখানুভব করতে পারে না। এদের মনে অপরাধবোধ ও অস্থিরতা কাজ করে।

খুতবা জুমার নামাজের গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। ‘খুতবা’ অর্থ ভাষণ বা বক্তৃতা। খুতবায় মানুষ অন্ধকারের পথ থেকে আলোর পথে ফিরে আসে। পুরো সপ্তাহের কার্যক্রম, চলননীতি ও সমকালীন বিষয়ে এ ভাষণ অত্যন্ত জরুরি। মুসলিম বিশ্বের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক ও ধর্মীয় সার্বিক বিষয়ের সংক্ষিপ্ত আলোচনা হয়। মুসলমানদের আগামী দিনের করণীয়, নির্দেশিকা ও দৃষ্টিভঙ্গি প্রদান করা হয়। এ জন্য শ্রোতাদের তা মনোযোগ দিয়ে শোনা বাধ্যতামূলক। এ খুতবায় থাকতে হবে উপদেশ, বিশ্ব পরিস্থিতি, দেশের হালচাল, মুসলিম উম্মাহর অবস্থা ও করণীয়। থাকবে ঐক্য, সংহতি ও ভ্রাতৃত্বের গুরুত্ব গুরুত্ব প্রসঙ্গে। থাকবে সমাজে বিদ্যমান অনাচার চিহ্নিত করে প্রতিকারের পক্ষে বক্তব্য। যে অঞ্চল বা মহল্লিায় খুতবা পাঠ হবে সে মহল্লিার উন্নয়ন, সমস্যা সমাধান শীর্ষক আলোচনা থাকবে। দেশ ও মুসলিম উম্মাহর জন্য থাকবে শুভকামনা ও দোয়া। মানবজীবনে খুতবার গুরুত্ব, তাৎপর্য ও প্রয়োজনীয়তা অত্যধিক। ইসলামের দাওয়াত ও প্রচারে জুমার খুতবা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। অনেকে ভুলেভরা জীবন থেকে ফিরে আসেন। সুখি-সমৃদ্ধ ও স্বপ্নীল ভবিষ্যত রচনা করেন। সমাজের সাধারণ মানুষেরাও এ খুতবা থেকে জরুরি অনেককিছু শিখে থাকেন। জীবনের ভালোমন্দ দিক সম্পর্কে অবহিত হন। জীবনের পাথেয় সংগ্রহ করেন। জীবন সাজান নতুন করে। উন্নত ও উজ্জ্বল ভবিষ্যতের স্বপ্ন আঁকেন। মৃত্যুপরবর্তী জীবনে মুক্তির আশাবাদ পোষণ করেন।

খতিবরা সমাজের মানুষের অত্যন্ত শ্রদ্ধা ও মর্যাদার পাত্র। এ জন্য একজন খতিবকেও গভীর জ্ঞান, পাণ্ডিত্য ও স্বচ্ছ চিন্তাধারার অধিকারী হতে হবে। দেশ ও জাতির জন্য হতে হবে নিবেদিতপ্রাণ। তার বক্তব্যে সংস্কার, পুনর্গঠন ও জাতি গঠনের নির্দেশনা থাকতে হবে। বিকৃতি-বিভ্রান্তি, নাস্তিক্যবাদি, বিপর্যয়-বিশৃঙ্খলা, সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও নৈরাজ্য থেকে সমাজকে মুক্ত রাখাই খুতবার অন্যতম উদ্দেশ্য। আমাদের দেশের অনেক খতিব প্রাচীনকালের খুতবা এখনও পড়ে থাকেন। এতে সমকালীন সমস্যা ও সংকট সম্পর্কে কোনো আলোচনা ও দিকনির্দেশনা নেই বললেই চলে। খতিবকে অবশ্যই সময়োপযোগিতা ও প্রাসঙ্গিক বিষয়ের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে।

জুমার নামাজে মুসলমানদের অনেক শিক্ষা রয়েছে। এ নামাজের মাধ্যমে সমাজে শান্তি-শৃঙ্খলা স্থিতিশীল হয়। পরস্পরের মধ্যে মনুষ্যত্ববোধ জাগ্রত হয়। মুসলমানদের মাঝে জনমত তৈরি হবে। সৃষ্টি হয় সাম্য-মৈত্রী ও সৌভ্রাতৃত্বের বন্ধন। পারস্পরিক হিংসা-দ্বন্দ্ব-কলহের অবসান ঘটে। এতে আনুগত্য, উদারতা, নমনীয়তা ও বিনয়ের যে শিক্ষা রয়েছে’তা যেন সমাজের সর্বস্তরে সবসময়ের জন্য প্রাণের খোরাক হয়ে বিরাজ করে। মসজিদ থেকে বেরিয়ে স্বাভাবিক জীবনেও যেন ওই শিক্ষার প্রমাণ মেলে।

নয়া শতাব্দী/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x