ঢাকা | বৃহস্পতিবার ৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৫ জিলহজ ১৪৪২

অঙ্গ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে অমর হতে চান লুরন্ট সিমন্স

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশনার সময়: ১০ জুলাই ২০২১, ১৩:০১ |

অন্যান্য শিশুরা যেই বয়সে মাঠে কিংবা ঘরের মেঝেতে খেলাধুলায় ব্যাস্ত সেই বয়সেই পদার্থবিদ্যায় স্নাতক শেষ! এমন অসাধ্য সাধন করেছেন বেলজিয়ামের ১১ বছর বয়সী লুরন্ট সিমন্স ।

এই বিস্ময় বালক এবার অঙ্গ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে অমরত্ব অর্জনের বিষয়ে গবেষণা করতে চান।

ইউনিভার্সিটি অব অ্যান্টওয়ার্প থেকে পদার্থবিদ্যায় স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছেন লুরন্ট সিমন্স। বর্তমানে তিনি বিশ্বের দ্বিতীয় কনিষ্ঠতম স্নাতক।

সাধারণত স্নাতক হতে ৩-৪ বছর সময় লেগে যায়। কিন্তু লুরন্টের ব্যাপারে মাত্র ১ বছরেই স্নাতক সম্পন্ন করেছেন। তার বিরল মেধার কথা মাথায় রেখে বিশেষ ব্যবস্থা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। মাত্র ১ বছরেই সমস্ত সিলেবাস শেষ করে সে। এরপর প্রতিটি তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক পরীক্ষা একসঙ্গে দেয় লুরন্ট।

ভবিষ্যতে অঙ্গ প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে অমরত্ব অর্জনের গবেষণা করতে চায় এই বিস্ময় বালক।

অবশ্য এর আগেই পদার্থবিদ্যা নিয়ে পড়াশোনা শুরু করে লুরন্ট। মাত্র ৮ বছর বয়সে উচ্চ মাধ্যমিকের পড়া শেষ করেছিল সে।

লুরন্টের বিশেষ প্রতিভার কারণে তার জন্য ভিন্নভাবে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। এক বছরের ভেতর কয়েকটি করে ক্লাস পাশ করে লুরন্ট। তারপরেই পদার্থবিদ্যা নিয়ে পড়াশোনা শুরু করে দেয় সে।

এ বিস্ময় বালকের মতে, ‘মানবদেহ একটা বয়সের পর ক্ষয়িষ্ণু। কিন্তু মৃত্যু অনিবার্য’।‘এক এক করে মানবদেহের বিভিন্ন অঙ্গ, যন্ত্রাংশ দিয়ে প্রতিস্থাপন করতে চাই। এর ফলে কোনো মানুষ অনন্তকাল বেঁচে থাকতে পারে। মলিকিউলার ফিজিক্স থেকেই আসতে পারে এই ভাবনার ভিত্তি। এ বিষয়ে অভিজ্ঞ বিজ্ঞানীদের সঙ্গে কাজ করতে চাই।’

নয়া শতাব্দী/ জেএই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এই পাতার আরও খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x