ঢাকা | সোমবার ২ আগস্ট ২০২১, ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮, ২২ জিলহজ ১৪৪২

পেগাসাসের নজরদারিতে ছিলেন ১৪ জন রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশনার সময়: ২২ জুলাই ২০২১, ০৪:৪৯ |

ইসরায়েলের ফোন হ্যাকিং সফটওয়্যার পেগাসাস দিয়ে যাদের ফোনে আড়ি পাতা হয়েছিল, তাদের মধ্যে আছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল মাখোঁ, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসাসহ ১৪ জন রাষ্ট্রনেতা ও সরকারপ্রধান।

সাম্প্রতিক প্যারিস ভিত্তিক এক গবেষণা রিপোর্টে দেখা গেছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান, গুরুত্বপূর্ণ সাংবাদিক এবং ব্যবসায়ী সহ কমপক্ষে ৫০ হাজার লোকের ফোনে আড়ি পাতা হয়েছে এই স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে।

ইসরাইলি স্পাইওয়্যার পেগাসাস ব্যবহার করে আড়ি পাতা হয় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ফোনে! ধারণা করা হচ্ছে ইমরান খানের ফোনে এই স্পাইওয়্যার ঢুকানো হয় ভারতের পক্ষ থেকে। ইমরান খান এ বিষয়ে তার প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়েছেন।

অন্যদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রতিপক্ষ অনেক রাজনৈতিক নেতার ফোনে এই সফটওয়্যার ঢুকিয়ে আড়ি পাতার খবর পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে আছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।

এছাড়াও মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওবরাডোর এবং তার ঘনিষ্ঠ ৫০ জনের ফোনে আড়ি পাতা হয় এই স্পাইওয়্যার দিয়ে।

ইসরাইলের এই স্পাইওয়্যার ব্যবহার করে মরক্কো আড়ি পাতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁর ফোনে।

ম্যাক্রনের ওপর মরক্কো ও ইমরান খানের ওপর ভারতের আগ্রহের ভিত্তিতে নজরদারি চালানোর অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি প্রমাণ হলে পরিণতি খুব খারাপ হবে বলে সতর্ক করেছে এলিসি প্রাসাদ।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছে পেগাসাসের নির্মাতা ইসরায়েলি প্রতিষ্ঠান এনএসও। ইসরায়েলি স্পাইওয়্যার প্রতিষ্ঠানটির দাবি, ফাঁস হওয়া ডেটাবেসের সঙ্গে তাদের কোনো সম্পর্ক নেই।

এনএসওর দাবি, প্রতিষ্ঠানটির গ্রাহকদের কারও লক্ষ্য ছিলেন না ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট। অর্থাৎ নিজস্ব স্পাইওয়্যার পেগাসাস ব্যবহারের মাধ্যমে মাখোঁর ওপর প্রতিষ্ঠানটি নজরদারি করেনি। তালিকায় থাকা নম্বরের মানেই সেটিতে আড়ি পাতা হয়েছিল, এমনটা নয় বলে দাবি এনএসওর।

গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ৩৪টি দেশের কূটনীতিক, সামরিক বাহিনীর প্রধান ও রাজনীতিকদের ওপর নজরদারিতে পেগাসাস ব্যবহার করা হয়েছে। তালিকায় রয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তেদরোস আধানম গেব্রিয়াসাস, লেবাননের সাবেক প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি।

যদি কোনো স্মার্টফোনে পেগাসাস সফটওয়্যারটি ঢোকানো যায়, তবে এনএসও-র গ্রাহক পুরো ফোনটির দখলই পেয়ে যাবে। ফোনের মালিকের মেসেজ, কল, ছবি, ইমেইল সবই দেখতে পাবে, এমনকি হোয়াটসঅ্যাপ, টেলিগ্রাম, সিগন্যালের বার্তাগুলোও পড়তে পারবে। গোপনে ক্যামেরা কিংবা মাইক্রোফোন চালুও করতে পারবে। স্মার্টফোন ব্যবহার না করলেও এটি আশপাশ থেকে শব্দ গ্রহণ করতে থাকে।

নয়া শতাব্দী/এসইউ

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এই পাতার আরও খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x