ঢাকা | বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ৫ কার্তিক ১৪২৮

কে হচ্ছেন অ্যাঞ্জেলা মারকেলের উত্তরসূরি?

প্রকাশনার সময়: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:২৯

জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেল রাজনীতি থেকে বিদায় নিচ্ছেন, চলে যাচ্ছেন অবসরে। এদিকে, অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের উত্তরসূরির খোঁজে রোববার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সাময়িক ফলে দেখা গেছে, মেরকেলের দল অল্প ব্যবধানে পিছিয়ে আছে। নির্বাচনের আগেই বিভিন্ন জনমত জরিপে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস পাওয়া গিয়েছিল।

স্থানীয় সময় রাত ৯টা ১০ মিনিটে প্রকাশিত সাময়িক ফলে দেখা যাচ্ছে, সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এসপিডি) বিদায়ী চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের সিডিইউ/সিএসইউ দলের চেয়ে ১.২ শতাংশ ভোটে এগিয়ে আছে।

এবারের নির্বাচনে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন তিন জন। মেরকেলের দল ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ইউনিয়ন (সিডিইউ) থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন দলটির বর্তমান চেয়ারম্যান আরমিন লাশেট। আরমিন লাশেট বর্তমানে জনসংখ্যার হিসেবে জার্মানির সবচেয়ে বড় রাজ্য নর্থ রাইন-ওয়েস্টফালিয়ারের (এনআরডব্লিউ) বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী।

সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এসপিডি) থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন জার্মানির বর্তমান ভাইস চ্যান্সেলর এবং অর্থ মন্ত্রী ওলাফ শোলজ। তার রয়েছে দীর্ঘ রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা।

পরিবেশবাদী দল গ্রিন পার্টি থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন আনালেনা বেয়ারবক। তিনি বর্তমানে দলটির প্রধান এবং ২০১৩ সাল থেকে জার্মান পার্লামেন্টের সদস্য। পরিবেশবাদী রাজনৈতিক দল হিসেবে বর্তমানে গ্রিন পার্টির সমর্থন ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় এবছর দলটি উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ভোট পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে নির্বাচনের পর নতুন সরকার গঠন পর্যন্ত আছেন অ্যাঙ্গেলা মেরকেল ক্ষমতায়। এরপর বিদায় জানাবেন রাজনীতিকে। তবে রাজনীতি বা ক্ষমতা ছাড়লেও ইতিহাসে ইতিমধ্যেই তার আসন পাকাপোক্ত হয়ে গেছে।

অ্যাঞ্জেলা মারকেল ১৬ বছর ধরে জার্মান রাজনীতিতে এক অপ্রতিদ্বদ্বী রাজনীতিক। ২০১৮ সালের ৭ ডিসেম্বর ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাট দলের প্রধানের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে এক আবেগময়ী ভাষণে তিনি দেশের ভেতরে ও বাইরে ‘জার্মানির উদার মূল্যবোধ’কে বাঁচিয়ে রাখার আহ্বান জানিয়েছিলেন। তাকে একজন বিচক্ষণ ও বাস্তববাদী নেতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। একসময় বলা হতো তিনিই ‘জার্মানির রানী’। আবার তাকে ‘ইউরোপের সম্রাজ্ঞী’ হিসেবেও ডাকা হতো। শুধু জার্মানিই নয়, বিশ্বজুড়ে মারকেলের কোটি কোটি ভক্ত-অনুরাগী ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। তাদের অনেকেই মানতে পারছেন না তাদের প্রিয় নেতার এই বিদায়কে।

ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই নিজেদের দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এরই মধ্যে মারকেলের একটি ছবি ভাইরাল হয়ে পড়েছে যেটি এর আগেও ভাইরাল হয়েছিল। ২০১৮ সালে কানাডায় অনুষ্ঠিত জি-সেভেন সম্মেলনের এই ছবিটি নিজের ব্যক্তিগত টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করেছিলেন মারকেল।

আর সাথে সাথেই বিশ্বনেতাদের সাথে তার ওই ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমের কেন্দ্রবিন্দুতে চলে এসেছিল। ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে- যুক্তরাষ্ট্রের তখনকার প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প গম্ভীর হয়ে বসে আছেন। বুকে হাত বাধা তার। সামনে টেবিলের ওপর হাত ভর দিয়ে ঝুঁকে কিছু বলছেন মারকেল। তার চারপাশে দাঁড়িয়ে রয়েছেন কয়েকটি দেশের সরকার প্রধানসহ জি-সেভেন সম্মেলনে অংশ নিতে যাওয়া দেশগুলোর কর্মকর্তারা।

নয়া শতাব্দী/এমআর

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন