ঢাকা, বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

‘পদ্মা সেতু’ দেখে ক্ষুব্ধ সেন্সর বোর্ড

প্রকাশনার সময়: ২৮ জুলাই ২০২২, ১০:৫৬

ভুলভাবে উপস্থাপন ও অপ্রাসঙ্গিক দৃশ্য ধারণের কারণে সেন্সরে আটকে গেল বড়ুয়া মনোজিত ধীমন প্রযোজিত ও আলী আজাদ পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘পদ্মা সেতু’। জানা যায়, ছবিটি দেখার পর সেন্সর বোর্ডের অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

গত বৃহস্পতিবার বোর্ডের সদস্যরা সিনেমাটি দেখেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন তথ্য সচিব ও সেন্সর বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. মকবুল হোসেনসহ বোর্ডের অন্য সদস্যরা। সিনেমাটি দেখে বেশ ক্ষুব্ধ সেন্সর বোর্ডের অন্যতম সদস্য চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান।

তিনি বলেন, ‘সিনেমাটিতে পদ্মা সেতুকে অপমান করা হয়েছে। দুঃখের বিষয় হলো, পরিচালক যাচ্ছেতাইভাবে এটি তৈরি করেছেন। এ ধরনের রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনার ক্ষেত্রে ভুল তথ্য দেশের ইমেজের জন্য ক্ষতিকর। তাই আমরা সিনেমাটিকে সেন্সর না দিতে সম্মত হয়েছি।’

জানা যায়, সেতু বিভাগ থেকে ডেটা সংগ্রহ করাসহ ছবিটির জন্য বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে সেন্সর বোর্ড। এর মধ্যে দৃশ্য ধারণ ও সংলাপ পরিবর্তনের কথাও বলা হয়েছে।

তবে পদ্মা সেতু ছবির পরিচালক আলী আজাদের দাবি, ‘ভুল তথ্য উপস্থাপনের বিষয়টি সত্য নয়। আমার সিনেমায় কোনো ভুল তথ্য পরিবেশন করা হয়নি। যা কিছু দেখানো হয়েছে, তা বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় আগেই এসেছে।’

চলচ্চিত্রটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাঞ্জু জন ও অলিভিয়া মাইশা। বিভিন্ন চরিত্রে আরো আছেন রায়হান মুজিব, হিমেল রাজ, আনোয়ার সিরাজী, শান্তা পাল প্রমুখ।

গত জুনের শুরুতে শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার পদ্মা সেতু এলাকায় ‘পদ্মার বুকে স্বপ্নের সেতু’ নামে এই সিনেমাটির শুটিং হয়। পরে সিনেমাটির নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় ‘পদ্মা সেতু’। এর আগে সিনেমাটির প্রযোজক বড়ুয়া মনোজিত ধীমন জানিয়েছিলেন, সেন্সর ছাড়পত্র পেলে চলতি বছরের আগস্টেই এটি মুক্তির পরিকল্পনা রয়েছে।

নয়া শতাব্দী/ এডি

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ