ঢাকা, শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ জিলকদ ১৪৪৩

জায়েদ-সানীর ঘটনা নিয়ে ধোঁয়াশা, নতুন স্ট্যাটাস ঘিরে জল্পনা

প্রকাশনার সময়: ১২ জুন ২০২২, ১৭:০৮ | আপডেট: ১২ জুন ২০২২, ১৭:১৬

নব্বই দশকের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ওমর সানী ও বর্তমান সময়ের চিত্রনায়ক জায়েদ খানের মধ্যকার অপ্রীতিকর ঘটনা নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

গত শুক্রবার (১০ জুন) খল অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে চড় মারায় জায়েদ গুলি করার হুমকি দেন বলে সানী দাবি করলেও অস্বীকার করেছেন জায়েদ।

সংবাদমাধ্যমে ওমর সানির দাবি, বেয়াদবির একটা সীমা আছে। ও (জায়েদ) ইন্ডাস্ট্রিতে থেকে সবার সঙ্গে বেয়াদবি করবে, সব মেয়ে মানুষের সঙ্গে বিকৃত আচরণ করবে, এসবের একটা সীমারেখা আছে। সে মৌসুমীর সঙ্গে বেয়াদবি করার চেষ্টা করেছে। আমি গিয়েই (বিয়ের অনুষ্ঠানে) চড় মেরেছি। সে আমাকে পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি দিয়েছে। তখন আমি একটি গালি দিয়েছি তাকে।

তিনি বলেন, সে (জায়েদ খান) অনেকদিন ধরে আমার বউকে ডিস্টার্ব করছে। আমাদের বিভিন্ন কাজেও বাগড়া দিয়ে আসছে। আমাদের অনেক কাজ সে বন্ধ করে দিয়েছে। এরপরও আমি চুপ ছিলাম, মাটির দিকে তাকিয়ে নিজেকে কন্ট্রোল করার চেষ্টা করেছি।

জায়েদ খানের বিরুদ্ধে অনেক প্রমাণ আছে বলেও জানিয়েছেন ওমর সানী। তার ভাষ্য, ওর নামে বহু অভিযোগ আছে। সে অনেক সংসার ধ্বংস করেছে। তার পিস্তল বের করে চলাচল করা, কত মেয়েদের পেছনে লেগেছে। এমন বহু অভিযোগ আছে। এটা কি নতুন কিছু তার জন্য? জায়েদ খানের এই ধরনের অভিযোগের গাছের বয়স তো প্রায় ৪ হাজার বছর!

তবে এ বিষয়ে এখনই আইনি ব্যবস্থা নেবেন না ওমর সানী। আপাতত সিনেমা অঙ্গনের জ্যেষ্ঠ শিল্পীদের সঙ্গে আলোচনা করবেন, তাদের কাছে বিচার চাইবেন। এরপর অন্য কিছু ভাববেন।

কিন্তু জায়েদ খান অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে জানালেন, তার কাছে লাইসেন্স করা পিস্তল রয়েছে বটে। কিন্তু সেটা নিয়ে তিনি ঘুরে বেড়ান না। তাছাড়া ওই কনভেনশন সেন্টারে পিস্তল নিয়ে প্রবেশের সুযোগও নেই।

চড় খাওয়া ও পিস্তল বের করার কথা অস্বীকার করে গণমাধ্যমকে জায়েদ খান বললেন, এসব মিথ্যা কথা। আমি চড় খেয়েছি, পিস্তল বের করেছি, কে বলেছে, আমি তার সঙ্গে কথা বলব। তাদের মুখে এটা শুনতে চাই। তেমন কিছুই হয় নাই। শত্রুতা করে কেউ এসব কথা বলছে।

অন্যদিকে এ বিষয়ে অভিনেতা ডিপজল বলেছেন, এগুলো মিথ্যা, বানোয়াট খবর। এরকম কোনো ঘটনাই সেদিন ঘটেনি। যারা বলেছে, তারা মিথ্যা বলেছে।

তিনি বলেন, কেন এরকম কথা ছড়ানো হচ্ছে, তা তো আমি বলতে পারব না। কারণ আমি ছেলের বিয়ের আয়োজন নিয়ে অনেক ব্যস্ত সময় পার করছি। আর এটা তো বিশ্বাসযোগ্য কথাও না। ওখানে পিস্তল নিয়ে কেউ ঢুকবে কীভাবে? প্রবেশের গেটেই তো সবাইকে চেক করা হয়।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে ওমর সানি তার ফেসবুকে সারাসরি কিছু লিখেননি। তবে রোববার (১২ জুন) এক স্ট্যাটাসে এই চিত্রনায়ক লিখেন, ‘আমি ততক্ষণ নীরব থাকি যতক্ষণ পর্যন্ত আমার আত্মসম্মানে আঘাত না লাগে।’ যদিও কি বিষয়ে এমন স্ট্যাটাস দিয়েছেন তা লিখেননি। তবে নেটিজেনদের ধারণা, জায়েদ খানের প্রসঙ্গে এ স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

নয়াশতাব্দী/জেডআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ