ঢাকা, শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

নতুন গানে ঈদ

প্রকাশনার সময়: ৩০ এপ্রিল ২০২২, ০৯:৩৫

গত কয়েক বছরে তলানিতে এসে ঠেকেছে গানের বাজার। দিন দিন কমছে গানে বিনিয়োগ। এর মধ্যেও কিছু গান তৈরি হচ্ছে উৎসবের জন্য।

গত দুই বছরে মহামারি করোনার কারণে আরো মুখ থুবড়ে পড়েছে দেশের অডিও ইন্ডাস্ট্রি। অডিও লেবেলে শিল্পীদের গান প্রকাশে আলোড়ন নেই খুব একটা। কোনো কোনো শিল্পী আবার অডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানে ধরনা না দিয়ে নিজেরাই নিজেদের ইউটিউব চ্যানেলে স্বাধীনভাবে গান প্রকাশ করছেন। বর্তমান অডিও ইন্ডাস্ট্রি হয়ে পড়েছে ডিজিটাল মাধ্যমনির্ভর। এ মাধ্যমে গান প্রকাশ হওয়ার শুরুটা ভালো হলেও এখন গানে বিনিয়োগ খুব কম করছেন প্রযোজকরা। কারণ গানের চেয়ে নাটকে বিনিয়োগটাকেই লাভজনক মনে করে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো। সাউন্ডটেক, ধ্রুব মিউজিক স্টেশন, লেজারভিশন, জি-সিরিজ, সিএমভি, সিডি চয়েস, ঈগল মিউজিক, মাই সাউন্ড, অনুপম মিউজিক, সুরাঞ্জলিসহ বেশির ভাগ প্রথম সারির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের রয়েছে নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল। তবে এসব চ্যানেল এখন গান নয়; নাটক ও নাটকের অনুষঙ্গ হিসেবে গান প্রকাশ পাচ্ছে। উৎসবে খুব স্বল্প পরিসরে গান করছে এ প্রতিষ্ঠানগুলো। আবার শ্রোতা আবেদন বাড়াতে গান প্রকাশ হচ্ছে মিউজিক ভিডিও আকারে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এবারের ঈদে বেশির ভাগ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের গান প্রকাশের সংখ্যা খুবই কম। তাই ঈদের অডিও বাজার নিয়ে রয়েছে অনিশ্চয়তা। নতুন গানের আয়োজন কম। ব্যক্তিগত স্টুডিওগুলোতে চলছে নতুন কিছু গানের কাজ। অন্যদিকে তারকা শিল্পীসহ নবীনরা নতুন গানের বদলে ব্যস্ত স্টেজ শো নিয়ে।

তবে এক যুগ পর গানে ফিরেছেন রকস্টার জেমস। এবারের ঈদে চাঁদরাতে প্রকাশ পেতে যাচ্ছে তার নতুন গান। শিরোনাম জানা না গেলেও, জানা গিয়েছে গানটার কথা ও সুর করেছেন জেমস নিজেই। গানের কথা রচনায় তার সঙ্গে ছিলেন বিশু শিকদার। নতুন গান প্রসঙ্গে জেমস বলেন, ‘তারা (প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান) আমাকে সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দিয়েছে। তারা বলেছে যে আপনার যা ইচ্ছা যেভাবে ইচ্ছা করতে পারেন। এটা একজন শিল্পীর জন্য অনেক সম্মানের। নিজের মতো করে কাজ করা একজন শিল্পীর জন্য ভালো।’

এছাড়াও ঈদ উপলক্ষে প্রকাশ পেয়েছে কুমার বিশ্বজিৎ, ফাহমিদা নবী, আসিফ আকবর, আঁখি আলমগীর, সন্দীপন, বেলাল খান, কণা, ন্যান্সি, সালমা, লোপা, তানজীব সারোয়ার, নোলক, শফিক তুহিন, মিনার, রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, মমতাজ, কিশোর, সানিয়া সুলতানা লিজা, শান সায়েক, লুৎফর হাসান, বাপ্পা মজুমদার, বাঁধন সরকার পূজা, আভরাল সাহির, সাদী, সজল, সামিনা চৌধুরী, বিউটি, ঝিলিক, ঐশী, নদী, পড়শী, কাজী শুভ, আরিফিন রুমি, বেলাল খান, শাওন গানওয়ালাসহ বেশকিছু নতুন-পুরোনো শিল্পীদের গান। আরো বেশকিছু রয়েছে প্রকাশের অপেক্ষায়।

এবারের ঈদে ফাহমিদা নবীর কণ্ঠে শোনা যাবে ‘আমি তোমার সমাধিতে এসেছি’ এবং ‘এমন কেন হয়’। আসিফ আকবর গেয়েছেন ‘পাল্টা-ফা ফা ফা’, ‘এইতো সেদিন’, ‘ভাই’ ও ‘বকবক টগবগ’। আঁখি আলমগীরের কণ্ঠে প্রকাশ পেয়েছে ‘কেন এত ভয়’, লিজার ‘চাই তোমায়’, বেলাল-লোপার ‘সুবহানাল্লাহ’, বেলাল-মমতাজের ‘বাপের বড় পোলা’, শুভ্রদেবের ‘গার্লফ্রেন্ড’, তৌসিফের ‘ভালোবাসো কিনা’, দিলশাদ নাহার কণার ‘মন ভালো’, ইমরানের ‘তোমারই আছি’, কুমার বিশ্বজিতের ‘প্রেমের মন্ত্র’, বুশরা শাহরিয়ারের ‘একশ নালিশ’, কিশোরের ‘কান্দে রে ভাই কান্দে’, সন্দীপনের ‘ও ঢাকি বাজা’সহ বেশকিছু গান।

ধ্রুব মিউজিক স্টেশনের কর্ণধার ও সংগীতশিল্পী ধ্রুব গুহ বলেন, ‘ঈদ উপলক্ষে কিছু নতুন গান রিলিজ করছি। তবে কয়েক বছর তো কাজই করতে পারিনি করোনা পরিস্থিতিতে। তবে এই রোজার ঈদে কম হলেও কোরবানি ঈদের জন্য ফুল প্রিপারেশন নিচ্ছি। গানসহ ভিডিও মুক্তি পাবে কোরবানির ঈদে। যদিও আমরা সারা বছরই টুকটাক গান-ভিডিও রিলিজ করি। নতুনদের প্রাধান্য দিয়ে এই ঈদে কিছু গান তৈরি রয়েছে। এর মধ্যে জিসান শুভ, লুৎফর হাসান, এসডি প্রিন্স, আসিফ-মিমির দ্বৈত গান রয়েছে। মিনার, তানজীব সারোয়ারের গানগুলো ভিডিও আকারে কোরবানিতে অবমুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে।’

নয়া শতাব্দী/এস

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ