ঢাকা | বৃহস্পতিবার ৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৫ জিলহজ ১৪৪২

এফডিসিতে কোরবানি নিষিদ্ধ, কি করবেন পরীমনি?

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশনার সময়: ১৯ জুলাই ২০২১, ২০:২৪ |

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করর্পোরেশনের (বিএফডিসি) অভ্যন্তরে এবার কোরবানি দেওয়া নিষিদ্ধ করেছে কতৃপক্ষ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চলচ্চিত্র সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘এটা তো আমাদের কোনো সম্পত্তি নয়, সরকারি কেবিআইভুক্ত এরিয়া। সরকার যদি স্বাস্থ্যবিধির কারণে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়, আমরা সহযোগিতা করব। তাছাড়া গত বছর বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েছিলাম। মাংসের জন্য বাইরের লোকজন এসে ধাক্কাধাক্কি করে গেট ভেঙে ফেলার মতো অবস্থা করেছিল। করোনা ও এসব বিষয় বিবেচনা করে প্রশাসন যদি মনে করে এখানে কোরবানি দেওয়া সঠিক নয়, আমাদের তা মেনে নেওয়াই উচিৎ হবে বলে মনে করি।’

অসচ্ছল শিল্পীদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নিতে গত কয়েকটি ঈদুল আজহায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের অভ্যন্তরে (বিএফডিসি) পশু কোরবানি করা হচ্ছে। নায়করাজ রাজ্জাক এবং মান্নার স্মরণেও পশু কোরবানি দেওয়া হতো।

এছাড়াও ২০১৬ সাল থেকে নাইকা পরিমনী বিএফডিসিতে পশু কোরবানি দেওয়া শুরু করেন। পরীমনি প্রতি বছর একটি করে গরুর সংখ্যা বাড়ানোরও ঘোষনা দিয়েছেন সে হিসেবে এ বছর পরীমনির ৬ টি গরু কোরবানি দেওয়ার কথা ছিলো। এবং তিনি সে ঘোষনাও দিয়েছিলেন।

তবে এবার আর তা হচ্ছে না। করোনাভাইরাস মহামারির উচ্চসংক্রমণের কথা ভেবেই এবার বিএফডিসিতে পশু কোরবানি দেওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির সহকারী পরিচালক (সিকিউরিটি ইনচার্জ) আমিনুল করিম খান।

বিএফডিসির বিভিন্ন স্থানে ইতোমধ্যেই নিষেধাজ্ঞার নোটিশ ঝোলানো হয়েছে। সেখানে লেখা, ‘এফডিসির অভ্যন্তরে কোরবানির পশু প্রবেশ এবং কোরবানির পশু জবাই কঠোরভাবে নিষেধ করা হলো।’

এমন নোটিশের বিষয়ে আমিনুল করিম খান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিভিন্ন শুটিং ফ্লোরের দেয়াল, প্রশাসনিক ভবন ও ক্যান্টিন চত্বরেও নোটিশটি টানিয়েছে এফডিসি কর্তৃপক্ষ।

ইতিমধ্যেই শিল্পীদের বিষয়টি জানানো হয়েছে। এ বছর এফডিসির অভ্যন্তরে কোরবানির পশুর প্রবেশ এবং জবাই কঠোরভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’

নয়া শতাব্দী/জেআই/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এই পাতার আরও খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x