ঢাকা, বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

জবি শিক্ষার্থীর অবসরপ্রাপ্ত সহকারী সচিব পিতার সন্ধান চায়

প্রকাশনার সময়: ১৩ আগস্ট ২০২২, ২২:২৬

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, ঢাকার অবসরপ্রাপ্ত সহকারী সচিব মো. সোলায়মান আলী তালুকদারের সন্ধান চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ছেলে মো. সাবিত সিয়াম। সাবিত সিয়াম জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নাট্যকলা বিভাগের শিক্ষার্থী।

শনিবার (১৩ আগস্ট) বিকেলে ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

লিখিত বক্তব্যে বলেন, ২০২০ সালের ২২ ডিসেম্বর নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লা থেকে আমার বাবাকে গুম করা হয়। চাকরি থেকে অবসরে যাওয়ার সময় বাবা একটি ফ্ল্যাট বন্ধক নেওয়ার জন্য যাত্রাবাড়ির স্থানীয় মাসুদ মোল্লা নামে এক ব্যাক্তির সাথে পরিচয় হয়। মাসুদ মোল্লা বাবার লালবাগের বাসায় যাতায়াত করতো। সে আমার বাবার নিকট থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা নিয়ে ফ্ল্যাট বন্ধকের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়। কিছুদিন পর ব্যাবসার কথা বলে বাবার পেনশনের ৩৭ লক্ষ টাকা ঋণ নেয়। সম্পূর্ণ টাকা পাওয়ার পর বাবাকে ফ্ল্যাট থেকে বেদখল করে। এরপর বাবা ওই টাকা ফেরত চাইলে মাসুদ মোল্লা ইসলামি ব্যাংকে ১২ লক্ষ টাকা এবং উত্তরা ব্যাংকের ১৭ লক্ষ টাকার দুটি চেক দেয়। চেক দিয়ে টাকা তুলতে গেলে জানা যায়, দুটি চেকই ভুয়া।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে ২০২০ সালের ৬ জুলাই আইনি সহায়তার জন্য আমার বাবা যাত্রাবাড়ি থানায় দ্বারস্থ হন। বাবার এই দুঃসময়ে আমার সৎমা মাহফুজা বেগম তাকে বাসা থেকে বের করে দেয়। অসুস্থ পিতাকে নিয়ে আমি মিরপুরের বাসায় সুস্থ রাখার চেষ্টা করি। এরপর ২২ ডিসেম্বর থেকে আমার বাবা হঠাৎ করে নিখোঁজ হয়ে যান।

সাবিত সিয়াম বলেন, গত বছরের ২৯ অক্টোবর বাবার সন্ধান চেয়ে নারায়ণগঞ্জ কোর্টে আমি নিজে বাদী হয়ে ২৭৩/২১ নং মামলা দায়ের করি। বিষয়টি পিবিআই নারায়ণগঞ্জকে দায়িত্ব দিলে আইও আসামি কর্তৃক প্রভাবিত হয় এবং আমার পিতা পাগল হয়ে হারিয়ে গিয়েছে বলে রিপোর্ট করে। কিন্তু আমার পিতা পঙ্গু অবস্থায় করোনাকালীন এ সময়ে কি করে হারিয়ে যায়। সব ঘটনা শুনে, দেখে আমরা নিশ্চিত হলাম তাকে গুম করা হয়েছে। আমি আমার পিতার সন্ধান চাই।

নয়া শতাব্দী/এফআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ