ঢাকা, বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের বাইরে প্রশ্নে অসন্তোষ

প্রকাশনার সময়: ১৩ আগস্ট ২০২২, ১৭:২৬

করোনা মহামারির কারণে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষা। ফলে গত ফেব্রুয়ারিতে একই সিলেবাসে ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তবে সংক্ষিপ্ত নয় বরং পূর্ণ সিলেবাসে প্রশ্ন হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে অংশ নেওয়া ‘বি’ (মানবিক) ইউনিটের ভর্তিচ্ছুরা। এ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন তারা।

ভর্তিচ্ছুরা জানান, এইচএসসি পরীক্ষা যে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে হয়েছে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষাও একই সিলেবাসে হওয়ার কথা ছিল। সে হিসেবেই তারা প্রস্তুতি নিয়েছেন। গুচ্ছ কমিটিও এ সিলেবাসেই ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্ন করবেন বলে জানিয়েছিলেন।

তবে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের বাইরে থেকেও অনেকগুলো প্রশ্ন এসেছে। বাংলা ৩৫, ইংরেজি ৩৫ ও সাধারণ জ্ঞান ৩০ মিলিয়ে মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে বাংলায় বেশিরভাগ সিলেবাসের বাইরে থেকে প্রশ্ন এসেছে। এছাড়া সাধারণ জ্ঞান যেভাবে আসার কথা ছিল সেভাবে আসেনি। ইংরেজিও বেশ কঠিন ছিল বলেও জানিয়েছেন কয়েকজন ভর্তিচ্ছু।

বগুড়া থেকে আসা নাজমুস সাকিব বলেন, সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে আমাদের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। সে হিসেবে সিলেবাসের বাইরে থেকেও প্রশ্ন এসেছে। সংক্ষিপ্ত সিলেবাস কেন্দ্রিক পড়াশোনা করে থাকলে একটু কঠিন হয়ে যেত। তবে সবমিলিয়ে পরীক্ষা ভালো হয়েছে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক প্রফেসর ড. ইমদাদুল হক গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা বোর্ড থেকে যে সিলেবাস পেয়েছি, সে অনুযায়ী প্রশ্ন করা হয়েছে। প্রশ্নের মডারেটররাও সেভাবেই প্রশ্ন সাজিয়েছেন।

উল্লেখ্য, পরীক্ষায় ইবি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী ছিল ৭ হাজার ৫৮৫ জন। পরীক্ষার্থীদের উপস্থিতি ছিল সন্তোষজনক। শনিবার দুপুর ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের আটটি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরীক্ষা চলাকালে ভিসি প্রফেসর ড. শেখ আবদুস সালাম, প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া প্রমুখ পরিদর্শন করেন।

নয়া শতাব্দী/এফআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ