ঢাকা, বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ইবির দুই বিভাগে চার শিক্ষক নিয়োগ

প্রকাশনার সময়: ১০ আগস্ট ২০২২, ২১:০০

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) দুইটি বিভাগে চারজন শিক্ষক নিয়োগ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। গত মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫৫ তম সিন্ডিকেট সভায় তাদের নিয়োগ দেওয়া হয়। এর আগে গত শনিবার পরিসংখ্যান বিভাগে একজন প্রভাষক ও দুইজন সহকারী অধ্যাপক পদের বিপরীতে ২৭ জন প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়। এছাড়া রোববার ফোকলোর স্টাডিজ বিভাগে একজন প্রভাষক পদের বিপরীতে ৮ জন প্রার্থীর সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হয়।

সিন্ডিকেট সভা সূত্রে জানা গেছে, ২৫৫ তম সিন্ডিকেট সভায় ২৭০ এর অধিক আলোচ্যসূচি ছিল। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন করে চারজন শিক্ষক নিয়োগের বিষয়টিও চূড়ান্ত করা হয়। সূত্র জানিয়েছে, পরিসংখ্যান বিভাগে ইবির ওই বিভাগের ২০০৯-১০ শিক্ষাবর্ষের সুমন বিশ্বাস ও ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের আওয়াল ইসলাম খান সহকারী অধ্যাপক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন। এছাড়া একই বিভাগে প্রভাষক পদে নিয়োগ পেয়েছেন সিলভীয়া খানম। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে ২০১৯ সালে স্নাতক ও ২০২০ সালে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন। এদিকে ফোকলোর স্টাডিজ বিভাগে প্রভাষক পদে ড. মো. এরশাদুল হক নিয়োগ পেয়েছেন। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন।

এদিকে কর্মকর্তাদের সহকারী রেজিস্ট্রার পদে ৩৫ হাজার ৫০০ ও উপ-রেজিস্ট্রার বা সমমান পদে ৫০ হাজার টাকা প্রারম্ভিক বেতন স্কেলের অনুমোদন দিয়েছে সিন্ডিকেট। বিষয়টি ইউজিসির অডিট হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত বহাল থাকবে। তবে বিষয়টি নিয়ে ইউজিসি অডিটে আপত্তি জানালে বা প্রশাসনিক জটিলতা সৃষ্টি হলে এই সুবিধা প্রত্যাহার বা সংশোধনের শর্ত বেঁধে দেওয়া হয়েছে। তাদের চাকরির বয়সসীমা ৬০ থেকে ৬২ বছরে উন্নীতকরণের ক্ষেত্রে মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতির দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য চিঠি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে কর্মকর্তারা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছিলেন।

এদিকে সিন্ডিকেট সভায় ১০ জন ড্রাইভার নিয়োগ, ১৩ জন শিক্ষকের পদোন্নতি, শিক্ষকদের পিএইচডি ইনক্রিমেন্ট, পিএফ লোন ও ইন্টারনেট ভাতার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এছাড়া সভায় একাডেমিক কাউন্সিল ও ফাইন্যান্স কমিটিতে পাশ হওয়া বিষয়সমূহ সহ একাধিক বিষয়ে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এছাড়া কয়েকটি আলোচ্যসূচি নিয়ে দ্বিমত ও অস্পষ্টতা থাকার জন্য পুনরায় পর্যালোচনার জন্য রাখা হয়েছে।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. শেখ আবদুস সালামের সভাপতিত্বে সিন্ডিকেট সদস্য বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান, ট্রেজারার প্রফেসর ড. আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মিজানুর রহমান, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. রাকিবা ইয়াসমিন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. মিয়া মো. রাসিদুজ্জামান, অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মিথিলা তানজীল, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব শাহজাহন আলম সাজু, সিন্ডিকেটের সচিব ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এইচ এম আলী হাসান সহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

নয়া শতাব্দী/জেআই

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ