ঢাকা, শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা

প্রকাশনার সময়: ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ১০:১৫

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রভোস্ট বডির পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে টানা ৩দিনের চলমান আন্দোলন শেষে শনিবার (১৫ জানুয়ারি) রাত ১টায় মশাল জ্বেলে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রীরা।

দাবি আদায়ের এ আন্দোলন অব্যাহত রাখতে আজ রবিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে অবস্থান করছে তারা।

এর আগে সন্ধ্যায় ছাত্রীদের আন্দোলনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীরা অতর্কিত হামলা চালায়।

হামলার শিকার ছাত্রীরা বলেন, আমাদের আল্টিমেটাম শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ আগে প্রক্টর এসে আমাদের উঠে যেতে বলে। আমরা বলি, আমাদের দাবি এখনই মেনে নেওয়া হলে আমরা এখনই উঠে চলে যাব। প্রক্টর আমাদের সার্কেল থেকে বের হওয়ার সাথে সাথে অ্যাম্বুলেন্সের বাহানা দিয়ে কিছু ছাত্র আমাদের সার্কেলে ঢুকে পড়ে।

ছাত্রীরা বলেন, প্রক্টর ও ছাত্রকল্যাণ উপদেষ্টার (ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক) উপস্থিতিতে ছাত্রলীগ আমাদের গায়ে হাত দেয় ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। আমাদের যৌক্তিক ও শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে সমর্থন নেয়া সাধারণ শিক্ষার্থীদেরকে মারধর করে।

ছাত্রীরা বলেন, এ হামলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা হিসেবে সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মৃন্ময় দাস ঝুটনের নেতৃত্বে কর্মী মাহবুবুর রহমান, সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগ ছাত্রলীগের সভাপতি রিশান তন্ময়, এফইএস বিভাগ ছাত্রলীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন, কর্মী নৃবিজ্ঞান বিভাগের শফিউল হক রাব্বী, কর্মী আবু বক্কর, কর্মী মামুন শাহ ও কর্মী সাব্বির হোসেনসহ তাদের অনুসারীরা ১০-১২ জন শিক্ষার্থীকে বেধরক মারধর করে বলে জানিয়েছেন তারা।

এসময় পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী সামিরা ফারজানা, রাফি, শাহরিয়ার আবেদিন, ইয়াসির সরকার, নাফিজ হাসান, ইংরেজি বিভাগের মো. শাহিন, মাইনুল রাশু, ছাত্রদলকর্মী রূপেল চাকমাসহ ১০-১২ জন শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

ছাত্রলীগের এমন হামলার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদেরকে চলমান আন্দোলনে অন্তর্ভুক্ত করে শনিবার রাত ১টা পর্যন্ত গোল চত্বরে অবস্থান করে প্রতিবাদ জানান। সেখান মশাল জ্বেলে দাবি মেনে নেওয়ার আগ পর্যন্ত ক্লাস পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দেন তারা।

নয়া শতাব্দী/এম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ