ঢাকা | বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

পনেরতে পদার্পণ নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটির

প্রকাশনার সময়: ২৪ নভেম্বর ২০২১, ১৯:৫৪ | আপডেট: ২৪ নভেম্বর ২০২১, ২০:০৭

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) ডিবেটিং সোসাইটি সফলতার চৌদ্দ বছর পেরিয়ে পনের বছরে পদার্পণ করেছে। ২০০৭ সালে ২৫ নভেম্বর "যুক্তির উচ্ছ্বাসে, চেতনার বিকাশে” স্লোগানকে সামনে রেখে কিছু মেধাবী তরুণের হাত ধরে পথচলা শুরু করে নোবিপ্রবি ডিএস।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটি ২০ নভেম্বর থেকে ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত ৫ দিনব্যাপী কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে। আজ ২৪ নভেম্বর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটা এবং রম্য বিতর্কের আয়োজন করে সংগঠনটি।

বিশ্ববিদ্যালয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিস অডিটোরিয়ামের চতুর্থ তলায় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নোবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার-উল আলম।

এ সময়ে আরো উপস্থিত ছিলেন নোবিপ্রবির উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবদুল বাকী নোবিপ্রবির কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. ফারুক উদ্দীন, বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব হলের প্রোভোস্ট শাহিন কাদের, নোবিপ্রবির ডিবেটিং সোসাইটির মডারেটর সহযোগী অধ্যাপক আফসানা মৌসুমী এবং নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটির সহকারী মডারেটর প্রভাষক এ. কিউ. এম. সালাউদ্দিন পাঠান।

প্রধান অতিথির বক্তব্য উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. দিদার- উল আলম বলেন, পড়াশোনার পাশাপাশি সহ- শিক্ষামূলক কার্যক্রমেও নিজেদের নিয়োজিত করতে হবে। বিতর্ক চর্চা একজন শিক্ষার্থীকে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে সাহায্য করে। করোনাকালীন কঠিন সময়েও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সহশিক্ষা কার্যক্রমে নিয়োজিত করেছে যা খুবই প্রশংসার দাবিদার।

এসময়ে, উপাচার্য আরো বলেন, নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটির সার্বিক কার্যক্রমে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সর্বদা সহযোগিতায় করবে।এসময়ে তিনি নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটিকে নিজস্ব কার্যালয় প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন।

প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে নোবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের বর্তক চর্চা ও বিস্তারে কাজ করে যাচ্ছে নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটি। সংগঠনটির সভাপতি মোমতাহিন আলম সিয়াম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নয়া শতাব্দীকে বলেন, নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটি নোবিপ্রবির সবচেয়ে পুরাতন একটি সংগঠন। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই সফলতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে সংগঠনটি। তরুণ নেতৃত্বের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের কাছে সংগঠনটি আরো আকর্ষণীয় হয়ে উঠছে। আমি আশা করি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন পূর্বের ন্যায় সংগঠনটিকে সকল প্রকার সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।

উল্লেখ্য, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি (নোবিপ্রবিডিএস) নবীন বিতার্কিকদের নিয়ে নবীন বিতার্কিক উৎসব, আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা, জাতীয় শোকদিবস স্মারক বিতর্ক প্রতিযোগিতা ও বিভিন্ন জাতীয় দিবস নিয়মিত উদযাপন করে আসছে। বিভিন্ন জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সংগঠনটির বর্তমান বিতর্কিকা নিয়মিত অংশগ্রহণ করে সফলতার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম বয়ে এনেছে।

নয়া শতাব্দী/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন