ঢাকা, বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

পূর্বধলায় মঞ্চ প্রস্তুত থাকলেও হয়নি জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠান

প্রকাশনার সময়: ১৫ আগস্ট ২০২২, ২১:৪০ | আপডেট: ১৫ আগস্ট ২০২২, ২২:০৬

যথাযোগ্য মর্যাদায় নেত্রকোনার পূর্বধলায় আওয়ামী লীগের বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদাৎবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হলেও উপজেলার কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার প্রাঙ্গণে মঞ্চ প্রস্তুত থাকলেও অনুষ্ঠান পালন করা হয়নি। অনুষ্ঠানের জন্য প্যান্ডেল তৈরি করে সামিয়ানা টানানোও হয়েছিল।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মুক্তিযোদ্ধার সাবেক কমান্ডার নিজাম উদ্দিন বলেন, প্রশাসন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদকে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠান উদযাপনের জন্য হেলিপ্যাড মাঠ নির্ধারণ করে দিয়েছে। পরে মাজহারুল ইসলাম সোহেল নিজ অর্থায়নে আমাদের জন্য হেলিপ্যাড মাঠ ও তার জন্য কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের সামনে প্যান্ডেল তৈরি করে।

হঠাৎ করে সে আমাদেরকে জানান, কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারের সামনে প্যান্ডেল তৈরি করেছি কিন্তু আমি লোকজনের কাছে শোক দিবসের অনুষ্ঠানের স্থান হিসেবে হেলিপ্যাড মাঠের কথা জানিয়ে আসছি। সে আরো জানান, এখন আমার সম্মান রক্ষার্থে আপনারা হেলিপ্যাড মাঠে অনুষ্ঠান করতে দেন। তখন অনেক মুক্তিযোদ্ধা ক্ষিপ্ত হলে পূর্বধলা থানার ওসির সমঝোতায় বেলা ১১টা পর্যন্ত হেলিপ্যাড মাঠে অনুষ্ঠান পালনের সিদ্ধান্ত হয়। পরে একই স্থানে সোহেল সমর্থিত লোকজনেরা শোক দিবসের অনুষ্ঠান পালন করে।

পূর্বধলা যুবলীগের সম্ভাব্য সভাপতি প্রার্থী মাজহারুল ইসলাম সোহেলের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জাহিদ হাসান প্রিন্স বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের আয়োজনে শোক দিবস পালনের স্থান হিসেবে হেলিপ্যাড মাঠ নির্ধারণ করা হয়েছিল।

পূর্বধলা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ ও মাজহারুল ইসলাম সোহেল একই স্থানে সমঝোতা করে অনুষ্ঠান পালন করেছে। কিন্তু শহিদ মিনার চত্ত্বরে কে বা কারা প্যান্ডেল তৈরি করেছে তা আমার জানা নেই।

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ