ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মহররম ১৪৪৪

কেন্দুয়ায় ভাই-ভাতিজাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ সবুজের পরিবার

প্রকাশনার সময়: ২৫ জুন ২০২২, ১৮:২৫

নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় বড় ভাই ও ভাতিজাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ ছোট ভাই সবুজ মিয়া। এঘটনাটি উপজেলার সান্দিকোনা ইউনিয়নে সান্দিকোনা গ্রামে ঘটেছে। বড় ভাই ও ভাতিজাদের পিটুনি খেতে খেতে সবুজ মিয়া এখন পঙ্গুত্ব বরণ করতে যাচ্ছে।

মামলা ও ভোক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানায়, সবুজ মিয়ার সাথে সহোদর বড় ভাই ইনচান মিয়ার জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। সবুজ মিয়া লোকবলে দুর্বল থাকায় প্রায়ই তাকে মারপিটসহ বিভিন্নভাবে অত্যাচার-নির্যাতন করে আসছেন ইনচান মিয়া গংরা। সর্বশেষ গত ২ এপ্রিল ইনচান মিয়ার পরিত্যক্ত জায়গা গরু বাঁধাকে কেন্দ্র করে কথার কাটাকাটির এক পর্যায়ে সবুজ মিয়া ও পরিবারের লোকজনের হামলা চালিয়ে বেধড়ক মারপিট করে। এতে সবুজসহ স্ত্রী-সন্তানরা আহত হন। বাড়িঘরসহ ঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর ও দুই লাখ ৭০ হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে হামলাকারীরা। এঘটনায় সবুজ মিয়ার স্ত্রী বাদী হয়ে কেন্দুয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আসামিরা জামিনে এসে বাদীসহ পরিবারের লোকজনকে নানাভাবে হুমকী-ধমকি দিচ্ছেন অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনার আড়াই মাস পেরিয়ে গেলেও সবুজ মিয়াকে সুস্থ করে তুলতে পারছেন না। একা একা তিনি চলাফেরাও করতে পারেন না। বর্তমান তিনি পঙ্গু অবস্থায় দুর্বিষহ জীবনযাপন করছেন। দিনদিন সবুজ মিয়ার শারীরিক অবস্থা অবনতি দিকে যাওয়ায় তাকে আবারও ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। তাদের পারিবারিক বিরোধ নিয়ে কয়েকবার দেন-দরবার হলেও সুরাহ হয়নি। গ্রামবাসী জানায়,সবুজ মিয়ার ওপর যা হচ্ছে সবই অন্যায় করা হচ্ছে। যেহেতু নিজেদের মধ্যে ঘটনা সেই কারণে আমরাও কারোর পক্ষ নেই না।

সবুজ মিয়ার স্ত্রী আকলিমা জানান, আমরা সান্দিকোনা গ্রামে বাস করি আর তারা পাশের ডাউকী গ্রামে বাস করেন। ওইখান থেকে এসে কিছুদিন পরে পরে আমাদেরকে অযথা মারপিট করে। আমাদের বাড়ির গাছপালা কেটে ফেলে। নানাভাবে প্রতিনিয়তই প্রাণনাশের হুমকী-ধমকি দেয়। তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ আমরা। আমার স্বামীকে মেরে পঙ্গু বানিয়েছে। সে এখন আর একা হাটতে পারেন না। তারা দরবার (সালিশ বৈঠক) মানে না। আমরা এই অত্যাচার থেকে বাঁচতে চাই।

এব্যাপারে ইনচান মিয়ার ছেলে খায়রুল ইসলামের সাথে মুটোফোনে যোগাযোগ করলে ফোন রিসিভ না করায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

এব্যাপার মাললার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মোহাম্মদ আলী জানান, অন্যরা সুস্থ হলে সবুজ মিয়া শারীরিক অবস্থা ভাল। মামলাটি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

নয়া শতাব্দী/জিএস

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ