ঢাকা, শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ জিলকদ ১৪৪৩

ধোবাউড়ার অনিমেষ দেশের দর্শক মাতাচ্ছেন গান গেয়ে

প্রকাশনার সময়: ২২ জুন ২০২২, ১৮:৪৬

ভারতের মেঘালয় রাজ্যের পাশে ময়মনসিংহের সীমান্তবর্তী উপজেলা ধোবাউড়া। উপজেলার গারো পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত বগাজড়া গ্রামের হাজং সম্প্রদায়ের বাসিন্দা অনিমেষ রায়। পাহাড় নদী ও সবুজঘেরা প্রকৃতির সাথে বেড়ে উঠা তার। ছোটকাল থেকেই গানের প্রতি ছিল প্রবল নেশা। পড়াশোনার পাশাপাশি অবসর সময়ে চর্চা করতেন গান। এইচএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর ভর্তি হন ত্রিশাল নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে। ভাগ্যক্রমে পেয়ে যান সংগীতের বিষয়। সেই থেকে গানের প্রতি আগ্রহ আরো বেড়ে যায়। এরই মাঝে কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক উত্তীর্ণ হয়েছেন। করোনাভাইরাসের প্রভাবে গত দুই বছরের বেশি সময় বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় সেই গারো পাহাড়ের পাদদেশে গ্রামের বাড়িতে অবসর সময় কাটান।

এরই ফাঁকে ধোবাউড়ার পর্যটন এলাকা চিনামাটির পাহাড়ে বসে গান গাওয়া শুরু করেন। গানগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেইসবুক পেইজ খুলে এবং নিজের ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করতে থাকেন। এভাবে সংগীত জগতে ধীরে ধীরে পরিচিতি পেতে থাকেন অনিমেষ রায়।

সেই গানগুলো ভাইরাল হতে থাকে। তারপরও বিভিন্ন খ্যাতিমান গায়কের নজরে আসে অনিমেষ। পার্থ বড়ুয়ার তত্ত্বাবধানে ‘আইপিডিসি আমাদের গান- চ্যানেলে নিজের লেখা ও সুরে ‘মন ভালা না রে তর পিরিতি ভালা না’ গান গেয়েছেন। সর্বশেষ কুক স্টুডিও বাংলায় নিজের হাজং ভাষায় নাসেক নাসেক গান গেয়ে বাংলাদেশের জনপ্রিয় সংগীত শিল্পী হয়ে উঠেন অনিমেষ রায়।নিজের লেখা ও সুর করা গান গেয়ে দর্শক মাতিয়েছেন অনিমেষ রায়। যার ভিউয়ার ইতোমধ্যে ৯ মিলিয়ন ছাড়িয়েছে।

জানা যায় ইউটিউবে এবং পেইজে গান দেখেই সংগীতশিল্পী শায়ান চৌধুরী অর্ণব খুঁজে নেন আজকের তারকা অনিমেষকে। তার এই সফলতায় সঙ্গে পেয়েছেন পান্থ কানাইকে।

তিনি বলেন, ‘পান্থ দা আমাকে সাহস দিয়েছেন। নাসেক নাসেক গানের বিষয়ে অনিমেষ রায় বলেন, ‘আমি হাজং সম্প্রদায়ের জানার পর আমাদের ভাষায় কোনো গান আছে কি না জানতে চান অর্ণব দা। আমি তাকে জানাই নিজের কথা। অনেকগুলো গান শুনে ‘নাসেক নাসেক’ গানটি বেছে নেন তিনি। যার অর্থ ‘নাচো নাচো’। তার এমন সফলতায় নিজের এলাকা ধোবাউড়ায় বন্ধু বান্ধব ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের ব্যাপক প্রশংসায় ভাসছেন অনিমেষ।

এ ব্যাপারে অনিমেষ রায় জানান, সবচেয়ে ভালো লাগা হচ্ছে মানুষ আমাকে টেনে টেনে তুলছে, তাদের ভালোবাসায় সামনে এগিয়ে যেতে চাই।

নয়া শতাব্দী/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ