ঢাকা, সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর নো মাইনাস পলিসি

প্রকাশনার সময়: ১৩ মে ২০২২, ২১:২১

দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান তার নির্বাচনী এলাকায় আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগাম নির্বাচনী প্রচারণা ও গণসংযোগ করেছেন। এসময় দল থেকে বহিষ্কারের সুপারিশকৃত এক নেতাকে মন্ত্রীর সাথে দেখে আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা চরম বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

তবে বাংলাদেশ সরকারের দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ঢাকা-১৯ আসনের সাংসদ ডাঃ এনামুর রহমান বলেছেন নির্বাচনকে ঘিরে নো মাইনাস পলিসি মানবেন তিনি।

শুক্রবার (১৩ মে) সাভারের পাথালিয়া ইউনিয়নে আসন্ন সংসদ নির্বাচনের আগাম নির্বাচনী প্রচারণা ও গণসংযোগে অংশ নেন ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী।

এসময় নয়ারহাট বাজার জামে মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করেন তিনি। এরপরে একটি সামাজিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন ও নয়ারহাট গণবিদ্যাপীঠে জনসংযোগ করেন। এ পুরো সময় তার সাথে উপস্থিত থাকতে দেখা যায় গত ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিদ্রোহী প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেনকে। তিনি প্রচারণায় বক্তব্যও রাখেন। গত ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়ে নৌকা প্রতীক প্রত্যাশী ছিলেন।

নৌকা না পেয়ে তিনি স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচনে নৌকা প্রার্থীর বিরুদ্ধে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দীতা করে বিপুল ভোটের ব্যবধানে পরজিত হন। তিনি পাথালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। দলের বিরোধীতা করায় গত ২০ ডিসেম্বর তাকে বহিষ্কারের সুপারিশ করেন আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। পরে তার পদে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পান মিজানুর রহমান। এত কিছুর পরেও জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে স্থানীয় সাংসদের সাথে তার এমন উপস্থিতিকে ভালো চোখে দেখছেন না স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।

পাথালিয়া ইউপি নির্বাচনে নৌকা মনোনীত প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান পারভেজ দেওয়ান বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী সাভার আশুলিয়ার সাংসদ ডাঃ এনামুর রহমান আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনী প্রচারণায় পাথালিয়া ইউনিয়ন এলাকায় আসবেন এব্যাপারে আমাকে বলেছিলেন। আমিও মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে আমাদের এলাকার মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করেছি। এসময় দেখলাম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও বহিষ্কৃত আওয়ামীগ নেতা তাঁর লোকজন নিয়ে মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে আছে। এই বহিষ্কৃত নেতা আলোচনা করেছে, আমিও উপস্থিতিদের সামনে আলোচনা করেছি। এরপর নৌকার বিপক্ষের লোকজন দেখে চলে এসেছি। পরে মন্ত্রী তাদের সাথে নিয়ে স্কুল পরিদর্শন করাসহ একসাথে খাওয়া দাওয়া করেছেন। এতে করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা কর্মীরা হতাশ ও ক্ষুব্ধ হয়ে আমার কাছে এসে এ বিষয়ে জানতে চাচ্ছে। আমি নিজেই স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছি। জবাবদিহিতাও করছি। আসলে যেখানে আমাদের এমপি মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় ছিলেন সেখানে আমাদের আর কি বলার থাকে।

এদিকে পাথালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, জাতীয় নির্বাচনের আগাম প্রচারণায় আমাদের এমপি মাননীয় মন্ত্রী পাথালিয়া ইউনিয়নে আসবেন এখবরটা আমাকে কেউ বলেনি, আমি জানিওনা। পরে শোনলাম বহিষ্কৃত ও বিতর্কিত লোকজন সাথে নিয়ে প্রচারণা চালিয়েছেন, স্কুল পরিদর্শন করেছেন আবার একসাথে দুপুরের খাবারও খেয়েছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান এনাম বলেন, বহিষ্কার হওয়া মানে তাকে আর নির্বাচনে মনোনয়ন দেয়া হবেনা আর সে কমিটিতে থাকতে পারবেনা। আর মসজিদে গণসংযোগ করা হয়েছে সেখানে নামাজী হিসেবে যে কেউই আসতে পারে। মানুষের আরও উদার হইতে হবে। আমার ইলেকশনে জিততে হবে, আমি তো কাউকে মাইনাস করে চলবোনা। জয় বাংলা যে বলে, নৌকার যে সমর্থক তাকে আমার কাছে রাখতেই হবে। নো মাইনাস পলিসি। ইলেকশন টা তো অন্য জিনিস। এইখানে একটা ভোটেরও দাম আছে।

নয়া শতাব্দী/এমআরএইচ

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ