ঢাকা | বৃহস্পতিবার ৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৫ জিলহজ ১৪৪২

মাংস রাখা নিয়ে বিরোধে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশনার সময়: ২২ জুলাই ২০২১, ০৩:৩১ |

জেলার রৌমারী উপজেলায় ফ্রিজে কোরবানির মাংস রাখাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে দোকানদার ছোট ভাইয়ের হাতে থাকা কাঠের আঘাতে নইমুদ্দিন (৫৫) নামে এক বড় ভাই নিহত হয়েছেন।

বুধবার (২১ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার বন্দবের ইউনিয়নের টাপুর চর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে মর্জিনা খাতুন রৌমারী থানায় ঘাতক চাচাসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার পর অভিযান চালিয়ে ঘাতক আব্দুল জলিলকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, টাপুরচর গ্রামে আব্দুল জলিলের (৩৮) দোকানের ফ্রিজে কোরবানির মাংস রাখতে যায় তার আপন ভাই খলিল। এসময় আব্দুল জলিল মাংস রাখতে রাজি না হওয়ায় খলিলের সঙ্গে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এরই একপর্যায়ে তাদের সৎ বড় ভাই নইমুদ্দিন এসে মাংস রাখতে না দেওয়ায় আব্দুল জলিলকে গালাগালি করে।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে দোকানে রাখা কাঠ দিয়ে নইমুদ্দিনকে পেটাতে থাকে আব্দুল জলিল। এতে ঘটনাস্থলেই বড় ভাইয়ের মৃত্যু হয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানায়, নিহত নইমুদ্দিন ঘাতক আব্দুল জলিলের সৎভাই। তার সঙ্গে আসে থেকেই জমাজমি নিয়ে দ্বন্দ্ব চলছিল।

রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মন্তাছের বিল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘নিহতের মেয়ে তার বাবা হত্যার ঘটনায় ৪ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। ১নং আসামি ঘাতক আব্দুল জলিলকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’

নয়া শতাব্দী/এসইউ

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এই পাতার আরও খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x