ঢাকা, শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে ত্রিদল মঞ্চ মন্দির

প্রকাশনার সময়: ২০ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:৪৬

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে জমিদার আমলে নির্মিত ত্রিদল মঞ্চ মন্দিরটি ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে উপনীত হয়েছে। তাড়াশ ডিগ্রি কলেজের মূল ফটক থেকে ২০ গজ পশ্চিমে মন্দিরটির বর্তমান অবস্থান। ১৩৩৯ বঙ্গাব্দে নির্মিত মন্দিরটি তিনটি স্তরে হওয়ায় একসময় দর্শনার্থীদের আকৃষ্ট করত। সংস্কারের অভাবে এরই মধ্যে নাজুক হয়ে পড়েছে মন্দিরটি।

মন্দিরের চার পাশের জায়গা সবই প্রাই বেদখল। অথচ ঐতিহ্যবাহী এ মন্দিরে একসময় সনাতন ধর্মাবলম্বীরা রসিক লাল বিগ্রহ স্থাপন করে পূজা দিতেন। এমনকি ঝুলন উৎসবে এপার-ওপার বাংলার মনীষীরা ভিড় জমাতেন এখানে।

ভারতের বিখ্যাত মনীষী জগদ্বন্ধু, মহানামব্রত ব্রহ্মচারী নিগমানন্দ স্বামীজির মতো মনীষীরা বিভিন্ন পূজা-পার্বণে এখানে আসতেন।

তাড়াশ সনাতন সংস্থার সভাপতি সঞ্জিত কুমার কর্মকার জানান, বর্তমানে আট শতক জায়গার ওপর প্রতিষ্ঠিত মন্দিরের মূল্যবান জায়গা বেদখল হয়ে যাওয়ার পাশাপাশি ধ্বংসের চরম সীমায় উপনীত হয়েছে। মন্দিরের দেওয়াল থেকে ইট-সুরকি খুলে পড়ে যাচ্ছে। সংস্কারের অভাবে মন্দিরের গায়ে বটপাকুড়ে বাসা বেঁধেছে। দীর্ঘদিন মন্দিরটির কোনো সংস্কার না হওয়ায় ঐতিহ্য হারিয়ে বিলীন হওয়ার উপক্রম হলেও দেখার কেউ নেই। এদিকে সময়ের পরিক্রমায় মন্দিরটির ধ্বংস হওয়া থেকে রক্ষা করার জন্য প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের কাছে জোর দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

ত্রিদল মঞ্চ মন্দির প্রসঙ্গে রাজশাহী-রংপুর প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের আঞ্চলিক অফিসে যোগাযোগ করা হলে জানান, ইতিমধ্যেই মন্দিরটি প্রত্নতত্ত্ব সম্পদ সংরক্ষণের তালিকায় অন্তর্ভুক্তির জন্য অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। তালিকাভুক্ত হলেই মন্দিরটি সংস্কারের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নয়া শতাব্দী/এস

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

আমার এলাকার সংবাদ