ঢাকা | শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮

নদীগর্ভে বিলীন হবার অপেক্ষায় কবরটি

ফরিদপুর প্রতিনিধি

প্রকাশনার সময়

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৩৮

প্রিয়জন যখন পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান তখন একমাত্র স্মৃতি হিসেবে কবরস্থান আগলে রাখেন আপনজনরা। কিন্তু সর্বনাশা মধুমতি শেষ স্মৃতিটুকুও কেড়ে নিচ্ছে। এমন এক মর্মান্তিক দৃশ্য দেখা গেলো ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার পশ্চিম চরনারানদিয়া গ্রামে। হয়তো আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বিলীন হয়ে যাবে একটি কবর।

কবরটি চরনারানদিয়া গ্রামের ইকবাল শেখের (৫২) বাবা-মায়ের। সরেজমিন গ্রামটিতে গিয়ে দেখা যায়, বাড়ির পাশেই রয়েছে কবরটি। এর আশপাশের জায়গা এরই মধ্যে গ্রাস করেছে মধুমতি। এখন এই কবরটিও যে কোনো সময় নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে।

উপজেলার পাঁচুড়িয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ চরনারানদিয়া গ্রামে নদীভাঙনের শিকার ইকবাল শেখ। তিনি বলেন, ১০ বছর আগে তার মা মারা গেলে বাড়ির পাশে কবর দেন। এরপর চার বছর আগে বাবা ইদ্রিস শেখ মারা গেলে তাকেও তার মায়ের পাশে কবর দেন। সেই সময় নদী ছিল অনেক দূরে। কিন্তু এ বছর নদী একদম বাড়ির কাছে চলে আসছে। এরই মধ্যে কবরটির অর্ধেক নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙন আতঙ্কে বাড়ির সবকিছু নিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছেন তারা।

ইকবাল শেখের স্ত্রী সালমা বেগম জানান, নদীতে তাদের আবাদি জমি বিলীন হয়ে গেছে। বাড়ির জমিও বিলীনের পথে। তবে সবকিছু চলে গেলেও তার স্বামীর দুঃখ ছিল না। বাবা-মার কবরটা চলে যাওয়ায় বেশি ভারাক্রান্ত হয়ে পড়েছেন তার স্বামী। তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। সারাক্ষণ শুধু বাবা-মায়ের কবরের কথা বলে কান্নাকাটি করছেন।

নয়া শতাব্দী/এম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x