ঢাকা | সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৫ আশ্বিন ১৪২৮

কালীগঞ্জে লাল কাপড়ে চলে ভাঙ্গা ব্রিজ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

প্রকাশনার সময়

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:১২

রাস্তার দু-ধারে টাঙানো লাল কাপড়। মাঝে ছোট ব্রিজের একাংশ ভেঙে পড়ে রয়েছে প্রায় দুই বছর। তাই চলাচলের জন্য পাশেই একটি বাঁশের সাকো তৈরি করা হয়েছে। সেটির অবস্থাও জরাজীর্ণ। ভ্যান-রিক্সা, সাইকেল নয় কোনো রকমে মানুষ চলাচল করে। চিত্রটি ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ফুলবাড়ি ব্রিজের।

জানা যায়, ভৈরব নদীর উপর ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের বারোবাজার ফুলবাড়ি এলাকায় অবস্থিত ব্রিজটি আকারে ছোট হলেও পার্শ্ববর্তী ফুলবাড়ি, ঝনঝনিয়া, কাস্টভাঙ্গা, বেলে ঘাটসহ বিভিন্ন গ্রাম এবং যশোরের চৌগাছা উপজেলার মানুষ বারোবাজার, কালীগঞ্জ এলাকায় যাতায়াতের পাশাপাশি জরুরী প্রয়োজন ও ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য ব্রিজটি ব্যবহার করে থাকেন। পাশাপাশি দু-পাশের কৃষকের ক্ষেতের সবজি যশোরের চুড়ামনকাঠিসহ বিভিন্ন বাজারে পৌছাতেও ব্যবহার করা হতো ব্রিজটি। কিন্তু প্রায় দুই বছর আছে ভৈরব নদীর এই অংশটি খনন করা হয়। ফলে খনন পরবর্তী বর্ষায় পানির চাপ বেড়ে যায় নদীতে। ফলে পানি তোড়ে ভেঙে পড়ে ব্রিজের একাংশ। কিছুদিন পরে এই স্থানে যেনতেন ভাবে একটি বাঁশের সাকো তৈরি করা হলেও সেটিও ভেঙে গেছে। প্রায় এক মাস আগে এই স্থানে রাতে মটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় নদীতে পড়ে দুই জনের মৃত্যু হয়। জমিতে চাষ দেওয়া ট্রাক্টর চালক ইসরাইল হোসেন জানান, এই ব্রিজ ভেঙে থাকার কারণে পার্শ্ববর্তী ঝনঝনিয়াসহ অন্যান্য গ্রামে যেতে অনেক পথ ঘুরতে হয়। এতে ঠিকমত যেমন যেতে পারিনা তেমনি অনেক পথ ঘুরে যাওয়ার কারণে সময় ও অর্থের ব্যয় হয় অনেক বেশী।

ঝনঝনিয়া গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, আমার বাড়ি থেকে বাজার মত্র দুই কিলোমিটার। কিন্তু এই ব্রিজ ভাঙার কারণে পাঁচ কিলো ঘুরে যেতে হয়। ক্ষেতের কাচা তরকারি বারোবাজার ও যশোরের চুড়ামনকাঠি বাজারে নিতে অনেক সমস্যা হয়। তাই ব্রিজটা যদি দ্রুত মেরামত করা হয় কিংবা নতুন তৈরি করা হয় তাহলে আমাদের অনেক সুবিধা হত।

একই এলাকার বাসিন্দা মিজানুর রহমান জানান, এই এলাকায় বড় বড় কথা বলার অনেকেই আছে। কিন্তু কাজের কাজ কেউ করে না। যদি কেউ কাজ করার মত থাকতো তাহলে গুরুত্বপূর্ণ এই ব্রিজটি বেহাল অবস্থায় এতো দিন পড়ে থাকতো না।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের প্রকৌশলী রুহুল ইসলাম জানান, চলাচলের অযোগ্য ব্রিজটি অচিরেই পুন:নির্মাণের কাজ শুরু হবে। টেন্ডার সম্পন্ন হয়েছে।

নয়া শতাব্দী/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x