ঢাকা | সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৫ আশ্বিন ১৪২৮

ভাবির সাথে স্বামীর পরকীয়া, স্ত্রীর আত্মহত্যা

ময়মনসিংহ ব্যুরো

প্রকাশনার সময়

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:০৪

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে স্বামীর বড় ভাইয়ের স্ত্রী সাঙ্গে পরকীয়া দেখে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন মুর্শিদা বেগম (৩২) নামে এক গৃহবধূ। নিহত মুর্শিদা বেগম দুই সন্তানের জননী ও ডৌহাখলা ইউনিয়নের নন্দী গ্রামের মাদুস মিয়ার স্ত্রী।

রবিবার (৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে ডৌহাখলা ইউনিয়নের নন্দীগ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে রাত ১০ টার দিকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছে স্বামী ও শাশুড়ি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, রবিবার সন্ধ্যার পর নিজ বসতঘরের বারান্দার পরিত্যক্ত রুমে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করে ওই গৃহবধূ। পরে নিহতের দুই সন্তান কান্নাকাটি শুরু করলে শ্বশুর আব্দুল বারেক মাষ্টার তাকে ঘরে না পেয়ে আশপাশের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি কর। পরে পরিত্যক্ত ঘরের বারান্দার রুমে ধাক্কা দিলে দরজা ভিতর থেকে বন্ধ পান তিনি। পরে জানালা ভেঙে মুর্শিদাকে ঝুলে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা আরও জানায়, প্রায় ১৩ বছর আগে পারিবারিকভাবে মাসুদ মিয়ার সাঙ্গে বিয়ে হয় মুর্শিদার। কিন্তু গত দুই থেকে আড়াই বছর যাবত মাসুদের সাঙ্গে তার ভাইয়ের স্ত্রীর পরকীয়া সম্পর্ক চলে আসছিল। এই নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া লেগেই থাকত। এজন্য প্রায়ই স্বামী মাসুদ মুর্শিদাকে হাত পা বেধে মারধর করত। ঘটনার দিন মুর্শিদা তার স্বামীর সাঙ্গে ভাবির পরকীয়া দেখে ফেলায় তাকে মারধর করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গৌরীপুর থানার ওসি খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ বলা যাবে।

নয়া শতাব্দী/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x