ঢাকা | মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

ধর্ষণের ৯ মাস পর আদালতে অন্তঃসত্ত্বাকে বিয়ে

রাজশাহী ব্যুরো

প্রকাশনার সময়

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫০

আপডেট

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:১৬

ধর্ষণের ফলে নয় মাসের অন্তঃসত্তা তরুণী ধর্ষণ মামলার আসামির সঙ্গে আদালতে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। রাজশাহীতে আদালতে ধর্ষণের শিকার ওই তরুণীর বিয়ে হয়।

রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজশাহী মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৫ এর বিচারক সেলিম রেজার উপস্থিতিতে তাদের বিয়ে হয় বলে জানা গেছে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, আসামির নাম সিফাত সানি। তার বাড়ি রাজশাহী নগরীর মেহেরচন্ডি এলাকায়। সিফাতের বিরুদ্ধে রাজশাহী নগরীর চন্দ্রিমা থানায় ধর্ষণের মামলাটি দায়ের করার পর গ্রেপ্তার হয় আসামী। এরপর তাকে কারাগারে বন্দি রাখা হয়েছিলেন।

সম্প্রতি ভুক্তভোগী তরুণীকে বিয়ে করার শর্তে হাইকোর্টে জামিন পান তিনি। হাইকোর্টের শর্তানুযায়ী, রোববার রাজশাহী মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত-৫ এ বিচারকের উপস্থিতিতে তাকে বিয়ে করেন সিফাত।

বাদীপক্ষের আইনজীবী মোখলেসুর রহমান স্বপন সাংবাদিকদের জানান, সিফাতের বিরুদ্ধে অভিযোগ যে, প্রেমের ফাঁদে ফেলে তিনি ওই তরুণীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। যার কারণে ওই তরুণী এখন নয় মাসের অন্তঃসত্তা অবস্থায় রয়েছে।

প্রথমে সিফাত মেয়েটির সঙ্গে মেলামেশার অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন। যার কারণে ওই তরুণীর পরিবার আইনের আশ্রয় নেয়। পরে আদালতের নির্দেশে তাদের বিয়ে হয়েছে। এতে উভয় পক্ষ সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।

নয়া শতাব্দী/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x