ঢাকা | রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮

বেড়িবাঁধ ভাঙন আতঙ্কে ধোবাউড়ার দেড় শতাধিক পরিবার

ময়মনসিংহ ব্যুরো

প্রকাশনার সময়

০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৬

আপডেট

০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২০

ভারত থেকে বয়ে আসা পাহাড়ি ঢলে নিতাই নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে পানি উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে নির্মিত প্রায় এক কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ভাঙন আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।

ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় ঘোষগাঁও ইউনিয়নে বন্যার প্রকোপ তেমন না থাকলেও পাহাড়ি ঢলে জিগাতলা গ্রামের নিতাই নদী পাড়ের দেড়শতাধিক পরিবার এখন ভাঙন আতঙ্কে। কারন এরই মধ্যে শুরু হয়েছে বেড়িবাঁধ ভাঙন। বেড়িবাঁধ ভেঙে অকাল বন্যায় বাড়িঘরসহ সদ্য রোপিত জমির ফসল ক্ষতি হওয়ার আংশকায় দিন পার করছে জিগাতলা গ্রামের নদী পাড়ের প্রায় দেড়শতাধিক পরিবার। কিন্তু নজরে আসছে না পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষের।

স্থানীয় এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, গত দুই বছর পূর্বে নিম্নমানের বালু সিমেন্টদিয়ে স্লাব বানিয়ে বেড়িবাঁধ নির্মান করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। কিন্তু বছর না যেতেই বেশ কয়েক জায়গায় দেখা দেয় ভয়াবহ ভাঙন। যার ফলে বন্যায় প্লাবিত হয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয় উপজেলার ঘোষগাঁও, ধোবাউড়া, গামারীতলা,পোড়াকান্দুলিয়াসহ চার ইউনিয়নের মানুষ।

ক্ষোভ প্রকাশ করে জিগাতলা গ্রামের ইউপি সদস্য আলাল উদ্দিন বলেন, বেড়িবাঁধ ভাঙনের ভয়ে রাতে আমাদের ঘুম হয় না। নিতাই নদীর তীব্র ভাঙনের ভয়ে ঘর-বাড়ি বিলীন হওয়ার আশঙ্কায় ছেলে-মেয়ে নিয়ে বৃষ্টি হলেই আমরা আতংকে রাত জাগি।

এ ব্যপারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডেভিড রানা চিসিম বলেন, গত বন্যায় ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ নির্মানের লক্ষে পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃপক্ষকে কয়েকবার জানানোর পরও কোন পদক্ষেপ নেয়নি। এলাকার সাধারণ কৃষকদের সদ্য রোপিত জমির ফসল রক্ষায় উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে ভেঙে যাওয়া বেড়িবাঁধ পুনঃনির্মাণ কাজ ইতিমধ্যে চলমান রয়েছে। জিগাতলা গ্রামে দ্রুত বেড়িবাঁধ পুনঃনির্মাণের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাথে আবারও যোগাযোগ করা হবে।

নয়া শতাব্দী/এসকে

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন
x