ঢাকা | শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

বিশ্ব মান দিবস আজ

শতাব্দী প্রতিবেদক
প্রকাশনার সময়: ১৪ অক্টোবর ২০২১, ০৮:২৯

আজ ৫২তম বিশ্ব মান দিবস। পণ্য এবং সেবার মান সম্পর্কিত বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়াতে বিশ্বব্যাপী প্রতিবছর ১৪ অক্টোবর এ দিবসটি পালন করা হয়ে থাকে। অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে যথাযথ মর্যদায় আজ বৃহস্পতিবার এ দিবসটি পালিত হবে। বিশ্ব মান দিবসের এ বছরের প্রতিপাদ্য হচ্ছে, ‘সমন্বিত উদ্যোগে টেকসই উন্নত বিশ্ব বিনির্মাণে মান’।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী প্রদান করেছেন।

এছাড়াও শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব জাকিয়া সুলতানা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

দিবসটি উপলক্ষে আন্তর্জাতিক মান সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর স্ট্যান্ডারাইজেশন (আইএসও), ইন্টারন্যাশনাল ইলেকট্রোটেকনিক্যাল কমিশন (আইইসি) এবং ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) প্রধানরাও পৃথকভাবে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাণী পাঠিয়েছেন।

এদিকে, বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই) বিশ্ব মান দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

দিবসটি উপলক্ষে রাজধানীর তেজগাঁওস্থ বিএসটিআইর প্রধান কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি, শিল্পসচিব জাকিয়া সুলতানা ও এফবিসিসিআইর প্রেসিডেন্ট মো. জসিম উদ্দিন। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করবেন বিএসটিআই মহাপরিচালক ড. মো. নজরুল আনোয়ার।

বিএসটিআই সদর দফতরের গৃহীত কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়গুলোতে আলোচনা সভাসহ প্রচার-প্রচারণামূলক কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

এছাড়াও, জাতীয় মান সংস্থা বিএসটিআইর পক্ষ থেকে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারে মান দিবসের গুরুত্ব তুলে ধরতে বিশেষ সাক্ষাৎকারভিত্তিক আলোচনা অনুষ্ঠান সম্প্রচারের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। বিভিন্ন মোবাইল ফোনে খুদে বার্তা (এসএমএস) প্রেরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা ছাড়াও রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড লাগানো হয়েছে।

বিএসটিআইকে আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে : রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেছেন, ভোক্তার আস্থা অর্জনে বিএসটিআইকে আরো দক্ষ, জবাবদিহি ও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। আজ ‘বিশ্ব মান দিবস’ উপলক্ষে গতকাল দেয়া এক বাণীতে তিনি এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই) বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও ‘বিশ্ব মান দিবস’ পালনের উদ্যোগকে রাষ্ট্রপতি স্বাগত জানান। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রাকে (এসডিজি) গুরুত্ব দিয়ে এবারে ‘বিশ্ব মান দিবস’-এর প্রতিপাদ্য ‘সমন্বিত উদ্যোগে টেকসই উন্নত বিশ্ব বিনির্মাণে মান’ যথার্থ হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, বিশ্ব পরিম-লে সকলের সুরক্ষার জন্য আন্তর্জাতিক মান হচ্ছে একটি অন্যতম হাতিয়ার। জনগণের জীবনযাত্রার মানোন্নয়নে সকল ক্ষেত্রে মানসম্মত পণ্য উৎপাদন ও সেবা প্রদান নিশ্চিত করা খুবই জরুরি। টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে সামাজিক ভারসাম্যহীনতা দূরীকরণ, টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও জলবায়ু পরিবর্তনের মাত্রা সীমিতকরণের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক মান ও সামঞ্জস্য নিরূপণের বিদ্যমান উপকরণসমূহ ব্যবহার করে এসব লক্ষ্য অর্জন সম্ভব। তিনি ‘বিশ্ব মান দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত সকল কর্মসূচির সাফল্য কামনা করেন।

মানসম্মত খাদ্য, পণ্য নিশ্চিত করা প্রয়োজন : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এসডিজির লক্ষ্য অর্জনে দেশীয় শিল্পের বিকাশে মানসম্মত পণ্য উৎপাদন, রফতানি বাণিজ্য সম্প্রসারণের পাশাপাশি ভোক্তাসাধারণের স্বার্থরক্ষায় মানসম্মত খাদ্য ও পণ্য প্রাপ্তি নিশ্চিত করা প্রয়োজন।

আজ ‘বিশ্ব মান দিবস’ উপলক্ষে গতকাল বুধবার দেয়া এক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)-এর উদ্যোগে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও ৫২তম ‘বিশ্ব মান দিবস’ পালন করা হচ্ছে জেনে আমি আনন্দিত। এ বছর বিশ্ব মান দিবসের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘সমন্বিত উদ্যোগে টেকসই উন্নত বিশ্ব বিনির্মাণে মান’। টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জনের মাধ্যমে উন্নত বিশ্ব গড়ার জন্য সচেতনতা বৃদ্ধির প্রয়াসে এবারের প্রতিপাদ্যটি সময়োপযোগী হয়েছে বলে আমি মনে করি।

তিনি বলেন, সম্পদের টেকসই উৎপাদন ও ব্যবহার, প্রাকৃতিক সম্পদের টেকসই ব্যবস্থাপনা, জলবায়ুর নেতিবাচক পরিবর্তন রোধে ত্বরিত উদ্যোগ এবং বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য পৃথিবীকে সবধরনের ঝুঁকি থেকে রক্ষা করা এসডিজির অন্যতম লক্ষ্য। এবারের প্রতিপাদ্যে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে সামাজিক ভারসাম্যহীনতা দূরীকরণ, টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও জলবায়ু পরিবর্তনের মাত্রা সীমিতকরণের ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ‘বিশ্ব মান দিবস’ উপলক্ষে বিএসটিআই আয়োজিত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।

নয়া শতাব্দী/এসএম

নয়া শতাব্দী ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

এ সম্পর্কিত আরো খবর
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়
বেটা ভার্সন